sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » বরকত-রুবেলের সম্পদ ক্রোক: ফেরত চান ভুক্তভোগীরা




(সংগৃহীত ছবি) ফরিদপুরের দুই ভাই সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের সম্পদ জব্দের নির্দেশে স্বস্তি জানিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও এলাকার লোকজন। যাদের জমি দখল করা হয়েছে, দ্রুত সেইসব জমি ফেরত চান ভুক্তভোগীরা। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত মানি লন্ডারিং মামলার আসামি বরকত ও রুবেলের ৫ হাজার ৭শ ৬ বিঘা জমিসহ স্থাবর- অস্থাবর সম্পদ জব্দের নির্দেশ দেন। সাত বছরে চাঁদাবাজি, টেন্ডার, মাদক ব্যবসা আর জমি দখল করে হাজার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ গড়েছেন রুবেল-বরকত। অভিযোগ আছে, সাবেক স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ঘনিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে এসব সম্পদ গড়েন তারা। ভুক্তভোগীরা জানায়, অবৈধভাবে সেসব জমি দখল করেছে বরকত ও রুবেল, সেইসব দ্রুত ফেরত দিতে সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি। এছাড়া তাদের অন্যায়ের শাস্তি হয় সেই প্রত্যাশা করি। ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন জানান, এরা দলের নাম ব্যবহার করে ক্ষমতার অপব্যবহার করেছে। সময়ের সাথে এরা দল পরিবর্তন করে সুবিধা ভোগ করে। অনেক অন্যায় অত্যাচার করেছে এই এলাকায়। এদের সম্পদ জব্দ করতে আদালত যে আদেশ দিয়েছে তাতে ফরিদপুরের আওয়ামী লীগ খুবই খুশি। এ থেকে অন্যায়কারীদের শিক্ষা নেবে। এই দুই ভাইয়ের দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছি। জেলা আওয়ামী লীগ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইভি মাসুদ জানান, এই দুইজন আগে বিএনপি দল করত। এরপর স্রোতের সাথে তাল মিলিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারে এলে স্থানীয় তখনকার সংসদ সদস্যের সাথে সক্ষতা করে। এর পরেই বিভিন্ন ভাবে তারা ধনকুবের হয়ে ওঠে। এর সম্পদ ক্রোক করাতে আমরা আনন্দিত। কারণ এতে অন্যরা আর অন্যায় করতে সাহস পাবে না। আর কেউ অন্যায়ভাবে সম্পদ উপার্জন করবে না। এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত। গত বছরের ২৬ জুন ঢাকার কাফরুল থানায় দুই হাজার কোটি টাকার পাচারের অভিযোগে সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা করে সিআইডি। এর আগে, ৭ জুন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির বাড়িতে হামলা মামলায় দুই ভাইকে গ্রেপ্তার করে ফরিদপুর পুলিশ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply