sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ সফল করতে মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রস্তুতি সভা




স্বাধীনতা বাঙালির শ্রেষ্ঠ অর্জন। তবে এ স্বাধীনতা একদিনে অর্জিত হয়নি। মহান ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ অর্জনের এই দীর্ঘ বন্ধুর পথে বঙ্গবন্ধুর অপরিসীম সাহস, সীমাহীন ত্যাগ-তীতিক্ষা, বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং সঠিক দিকনির্দেশনা জাতিকে কাংখিত লক্ষ্যে পৌছে দেয়। ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীণ পাকিস্তানী শাসকগোষ্ঠীর রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে অসীম সাহসিকতার সাথে ঢ়াকার রেসকোর্স ময়দানে বিকাল৩.২০ মিনিটে লাখো জনতার উদ্দেশ্যে বজ্রকণ্ঠে ১৮ মিনিটব্যাপী যে ঐতিহাসিক ভাষণ প্রদান করেন তা ছিল মূলত বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ। বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ ছিল একটি অগ্নিমশাল যা বিস্ফোরিত করেছিল মুক্তিযুদ্ধের দাবানল যার সামনে টিকতে পারেনি হানাদার পাকিস্তানি সেনাবাহিনী। জাতির জনকের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ শুধু বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়কেই নাড়া দেয়নি, ভাষণটি সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। এ ভাষণের মধ্য দিয়ে সমগ্র জাতিকে মুক্তির মোহনায় দাঁড় করিয়েছিলেন জাতির জনক ১৮ মিনিট স্থায়ী ভাষণের শব্দ-বুলেটের মালা গেঁথে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে শেষ করেন। ১০ লক্ষাধিক বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সামনে পাকিস্তানি হানাদারদের কামান-বন্দুক-মেশিনগানের হুমকির মুখে বঙ্গবন্ধু বজ্রকণ্ঠে প্রদান করেন। ভাষণটি ছিল তার হৃদয়ের গভীরে যে বিশ্বাস, সেই বিশ্বাস থেকে উৎসারিত হয়েছিল। ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণকে ‘মেমোরি অফ দা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে’ যুক্ত করেছে। বিশ্বের প্রামাণ্য ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে স্বীকৃতির মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হল ভাষণটি বিশ্বের শ্রেষ্ঠতম ভাষণ। পৃথিবীর কোনো ভাষণ কোনো দেশে এতবার প্রতিধ্বনিত হয়নি। বঙ্গবন্ধুর সেই কালজয়ী ভাষণ কর স্বরণ করতে ঐতিহাসিক দিনটিকে পালন করার জন্য কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর সাক্ষরিত নির্দেশ অনুযায়ী দিনটি সফল করতে প্রস্তুতি সভা করেছে মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগ। মঙ্গলবার সকালে কেদারগন্জ বাজারে উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে এ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউদ্দীন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রস্তুতি সভায় উপস্হিত থেকে বক্তব্য রাখেন মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লা, মহাজনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ বল্টু,মোনাখালি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জামাত আলী,বাগোয়ান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুতুবউদ্দীন মল্লিক,দারিয়াপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক এ এস এম মাহবুব আলম,মুজিবনগর উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ এর সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন,বাগোয়ান ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল মল্লিক, বাগোয়ান ইউপি ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ঝুটিকা,সম্পাদক মনিরুল ইসলাম ,ইউপি সদস্য সোহরাব হোসেন,কাজী কোমরউদ্দীন সেলিম,দিলিপ মল্লিক,শংকর বিশ্বাস সহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অংগসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply