sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » রসুন ব্যাক্টেরিয়ানাশক ও ত্বকের বার্ধক্য দূর করার উপাদান।




রূপচর্চায় রসুনের ব্যবহার এখনো তেমন পরিচিতি পায়নি আমাদের দেশে। এই

তাছাড়া ত্বক উজ্জ্বল, নিখুঁত ও সজীব করতে সহায়তা করে এটি। আজ থাকছে ত্বকে রসুন ব্যবহারের কিছু উপকারিতা- ব্রণ দূরে রাখতে কয়েক কোয়া রসুন ছেঁচে তা থেকে রস বের করে ব্রণে আক্রান্ত স্থানে লাগাতে হবে। এরপর পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। কয়েক দিনের ব্যবহারে দূর হবে ব্রণের দাগ ও লালচে ভাব। লোমকূপ সংকোচনে এক কোয়া রসুনের সঙ্গে অর্ধেক টমেটো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা মুখে লাগাতে হবে। লাগানোর ১০ মিনিট পর ধুয়ে নিন। রসুন ও টমেটোর এই প্যাক লোমকূপ সংকুচিত করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি ত্বক করে তোলে সতেজ। স্ট্রেচ মার্ক বা ফাটা দাগ স্থূলতাসহ নানা কারণে টান পড়ে ত্বক ফেটে দাগ হয়ে যায়। রসুনের রস ও জলপাইয়ের তেল গরম করে দাগে মালিশ করতে হবে। কয়েক দিন ব্যবহার করলেই এর সুফল পাওয়া যাবে। নিয়মিত ব্যবহারে মিলিয়ে যাবে দাগ। ত্বকে সংক্রমণ রোধে অনেকের ত্বকে লালচে দাগ দেখা যায়। পাশাপাশি মাথার তালু, কনুই ও হাঁটুতে চুলকানি ও নানা রকম প্রদাহ হয়। রসুনে রয়েছে প্রদাহ রোধকারী উপাদান। আক্রান্ত স্থানে রসুন নিয়মিত ব্যবহার করলে মিলবে এসব সমস্যা থেকে মুক্তি। বয়সের ছাপ পড়ে দেরিতে অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি- রসুনের রয়েছে বলিরেখা দূরে রাখার ক্ষমতা। সকালে খালি পেটে মধু, লেবুর সঙ্গে এক কোয়া রসুন প্রতিদিন খেলে দূরে থাকবে বলিরেখা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply