sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » রিয়াল-বার্সেলোনার বিরুদ্ধে মামলা করবে উয়েফা!




রিয়াল-বার্সেলোনার বিরুদ্ধে মামলা করবে উয়েফা! যে স্বপ্ন দেখছে ইউরোপের এলিট ক্লাবগুলো, সেটার অর্থ আসবে কোথা থেকে। এই লিগে যোগ দিলেই ক্লাবগুলো পাবে বিপুল পরিমাণ অর্থ। যার পুরোটার যোগান দিচ্ছে মার্কিন আর্থিক প্রতিষ্ঠান জেপি মরগ্যান। ইএসএলের জন্য তারা ৬ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে বলে গুঞ্জন। এদিকে ইএসএলের আবির্ভাবের পর আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে উয়েফা। সংস্থাটির সভাপতি অ্যালেকজান্ডার সেফেরিন বলেছেন শুধু অর্থের কাছে তিনি ফুটবলকে বিক্রি হতে দেবেন না। প্রয়োজনে আইনি লড়াইয়ে যাবার হুমকিও দিয়েছেন সেফেরিন। হঠাৎ এক ঝড়ে লণ্ডভণ্ড ইউরোপিয়ান ফুটবল। ইউরোপ বললে হয়তো ভুলই হবে। উয়েফাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ইউরোপিয়ান সুপার লিগ আয়োজনের যে প্রস্তাব দিয়েছে প্রভাবশালী ১২টি ক্লাব, তার প্রভাব পড়বে বিশ্বব্যাপী। কারণ ক্লাবগুলোর সমর্থক যে ছড়িয়ে আছে পুরো বিশ্বেই। তবে যে অসাধ্য সাধনের স্বপ্ন দেখছে রিয়াল, বার্সা, ইউনাইটেড, য়্যুভেন্তাস তাতে সাহস দিচ্ছে কারা? ইএসএলে যোগ দিলেই ক্লাবগুলো পাবে সাড়ে ৩ বিলিয়ন ইউরো। কিন্তু এই অর্থ আসবে কোথা থেকে? বিশ্বের অন্যতম বড় আর্থিক প্রতিষ্ঠান জেপি মরগ্যান। করোনা মহামারীর মধ্যেই গত বছরে তাদের নিট আয় ছিলো ২৯ বিলিয়ন ডলার। হ্যা, সংখ্যাটা অবাস্তব মনে হলেও জেপি মরগ্যান আর্থিকভাবে বিশ্বের অন্যতম বড় প্রতিষ্ঠান। তাই তাদের কাছে ৬ বিলিয়ন ডলারও হয়তো কিছুই না। তবে পুরো বিষয়টি সহজ ভাবে নিচ্ছে না ফিফা ও উয়েফা। এরই মধ্যে তারা দিয়ে রেখেছে নিষেধাজ্ঞার হুশিয়ারি। তাতেও যদি কাজ না হয় তবে আইনি লড়াইয়ের পথে যাবার হুমকি দিয়েছেন উয়েফা সভাপতি অ্যালেকজান্ডার সেফেরিন। উয়েফা সভাপতি অ্যালেকজান্ডার সেফেরিন জানান, এটা অর্থের লোভ ছাড়া আর কিছুই না। কিছু মানুষের অনৈতিকতা দেখে আমি অবাক হচ্ছি। এতে কখনোই ফুটবলের উন্নতি হবে না। ইউরোপিয়ান সুপার লিগ শুধুই অর্থের জন্য। এখানে আর কোনো উদ্দেশ্য থাকতে পারে না। অনেকে বলবেন উয়েফাও অর্থের জন্য টুর্নামেন্ট আয়োজন করে। কিন্তু আমি তাদের বলতে চাই, উয়েফা ফুটবলের উন্নয়নেও কাজ করে এসেছে। ফুটবল উন্নয়নে আমরা অনেক অর্থ বিনিয়োগ করি। যেটা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। ইউরোপিয়ান সুপার লিগ নিয়ে সোমবার নির্বাহী কমিটি এক জরুরি সভা করেছ। আপাতত আলোচনার ভিত্তিতে সমাধান চাইছে উয়েফা। সেটা না হলে প্রয়োজনে আইনি লড়াইয়ে যাবার কথাও ভাবছে ইউরোপের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply