sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ফিফটি হাঁকিয়ে ফিরলেন তামিম, শূন্যহাতে মিঠুন




সব শঙ্কা দূর করে অবশেষে মাঠে গড়িয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি। যে ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং নিয়েছে বাংলাদেশ দল। তবে লঙ্কান বোলিং তোপে শুরুতেই উইকেট হারানো বাংলাদেশ শত রানের আগেই হারিয়েছে আরও তিন উইকেট। আজ রোববার দুপুরে মিরপুর শেরে বাংলায় টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই এক বাউন্ডারিতে শুভ সূচনা করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে দ্বিতীয় ওভারেই স্ট্রাইক পেয়ে আউট হন লিটন। দুশমন্থা চামিরার গতিময় বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দিয়ে শূন্য হাতেই ফেরেন এই ওপেনার। ফলে মাত্র ৫ রানেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ এবং ক্রিজে তামিমের সঙ্গে যোগ দেন সাকিব আল হাসান। প্রথম দুটি বল ডট দিলেও তৃতীয় বলেই বাউন্ডারি মেরে রানের খাতা খোলেন দুই সিরিজ পর দেশের হয়ে খেলতে নামা সাকিব। তবে টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। দুই বাউন্ডারি মেরে তামিমের সঙ্গে ৩৮ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন সাকিব। গুনাথিলাকার বলে নিসাঙ্কার তালুবন্দী হয়ে ফেরার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ১৫ রান। যাতে ফিফটি পাওয়ার আগেই (৪৩ রানে) দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপরেই দারুণ খেলতে থাকা তামিমের সঙ্গী হন মুশফিকুর রহিম। এ দুজনে মিলে তৃতীয় উইকেট যোগ করেন ৫৬টি মূল্যবান রান। এরপরেই ধনাঞ্জয়ার স্পিনে পরাস্ত হয়ে ফিরে যান ৫১তম অর্ধশতক হাঁকিইয়েই। ফেরার আগে ৭০ বল থেকে ছয়টি চার ও একটি ছক্কায় ৫২ রান করেন তামিম। পরের বলেই ক্রিজে আসা মোহাম্মদ মিঠুনকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে জোড়া শিকার করেন ধনাঞ্জয়া। যাতে ২৩তম ওভারেই ৯৯ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেট খোয়ায় স্বাগতিকরা। সেইসঙ্গে খোয়ায় নিজেদের দুটি রিভিউও। ২৮ রানে ক্রিজে থাকা মুশফিকের সঙ্গী এখন বড় ভায়রা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এবং ২৪তম ওভারে গিয়ে দলীয় রান একশ ছুঁয়েছে বাংলাদেশ। এদিকে, আজকের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে বাংলাদেশ দলে সুযোগ হয়নি সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান, মোসাদ্দেক হোসাইন ও শরিফুল ইসলামের। অন্যদিকে, আজ করোনা নেগেটিভ হওয়ায় একাদশে সুযোগ পেয়েছেন লঙ্কান অলরাউন্ডার ইসুরু উদানা। বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল (ক্যাপ্টেন), লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (কিপার), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসাইন, মেহিদী হাসান মীরাজ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান। শ্রীলঙ্কা একাদশ: কুশল পেরেরা (ক্যাপ্টেন কাম কিপার), দানুশকা গুণাথিলাকা, পাথুম নিসাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, দাসুন শানাকা, আসেন বান্দারা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, ইসুরু উদানা, লক্ষণ সান্দকান ও দুশমন্ত চামিরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply