sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » স্পেনে মুসল্লিদের ইফতারির জন্য গির্জা ছেড়ে দিলেন খ্রিস্টানরা




গির্জায় আজানের ধ্বনি! শুনতে অবাক লাগলেও এমনই দৃশ্যের সাক্ষী হয়েছে স্পেনের বার্সেলোনা। সেখানে ধর্মীয় ভেদাভেদ ভুলে গির্জায় চলছে ইফতারির আয়োজন। করোনার কারণে অল্প জায়গায় জমায়েত নিষিদ্ধ থাকায় মুসল্লিদের জন্য ছেড়ে দেয়া হয়েছে গির্জা। যেখানে একসাথে ইফতারি করতে পারছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। আয়োজকরা বলছেন, শুধু মুসলিমরাই নয় ধর্মীয় এই সম্প্রীতিতে খুশি খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী’সহ অন্যান্য ধর্মের মানুষও। রেস্তোরাঁ বা মসজিদে জায়গা কম থাকায় করোনার কারণে এক সাথে এতো মানুষের জামায়েত নিষিদ্ধ। তাই গির্জায় বেশি জায়গা থাকায় ইফতারি করার সুবিধার্থে এটিকে বেছে নেয়া হয়েছে। স্পেনের ইফতার আয়োজক ফাউজিয়া চাতি জানান, আগে রমজানে ইফতার করতাম অল্প জায়গায় সবাই মিলে একসাথে। কিন্তু করোনার জন্য এ বছর অনুমোদন নেই। পরে ফাদারের কাছ থেকে এখানে ইফতারির করার অনুমতি নিয়েছি। কারণ এখানে দূরত্ব মেনে অনেকে অংশ নিতে পারছে। বার্সেলোনার শান্তি আননা গির্জার ফাদার পিও সানচেজ বলেন, আমরা বিশ্ব রাজনীতিবিদদের দেখি তারা ভিন্ন সংস্কৃতি, ভিন্ন ভাষা, ভিন্ন ধর্মের হয়েও বিভিন্ন ইস্যু সমাধানে আলোচনা করেন। এখানেও এর ব্যতিক্রম নয়। মানুষের প্রতি মানুষের সহাবস্থান দেখানোর জন্য ধর্ম ইঞ্জিন হিসেবে কাজ করে। শুধু মুসলিমরাই নয় এই উদারতাকে সাধুবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রাও। তারা বলছেন, মসজিদ কিংবা গির্জা সবই সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টি লাভের জন্য। তাই ধর্মীয় ভেদাভেদ ভুলে এমন সম্প্রীতি উদাহরণ হয়ে থাকবে। গির্জায় মুসলিম থাকায় কোন সমস্যা দেখি না। প্রতিদিন এখানে বহু মানুষ খেতে আসে। যদিও কারও কাছ থেকেই অর্থ নেয়া হয় না। মুসলিমদের একটি সংগঠনের উদ্যোগে বিনামূল্যে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ জনকে ইফতারি করানো হচ্ছে গির্জাটিতে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply