sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » এরদোয়ানের বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিবৃতি




চলমান ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাতে ইসরায়েলের পক্ষে প্রকাশ্যে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এমনকি এ পরিস্থিতিতে তারা ইসরায়েলকে অস্ত্র সরবরাহেরও চুক্তি করেছে। ক্ষমতায় আসার পর দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই ইস্যুতে বেশ আলোচিত হচ্ছেন। তিনি ও তার প্রশাসন একাধিকবার ইসরায়েলের পক্ষ নিয়ে বলেছে, ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। একই সঙ্গে তারা ফিলিস্তিনের রকেট হামলার নিন্দা জানান। তবে ইস্যুতে ইসরায়েলের চেয়ে ফিলিস্তিনেই বেশি প্রাণহানি ঘটছে। অন্যদিকে এই ইস্যুতে সবচেয়ে বেশি সক্রিয় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। তিনি বারবার ফিলিস্তিনিদের ওপর অত্যাচার না করতে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে ঐক্য ও কূটনৈতিক তৎপরতাও জোরালো করেছেন। এমনকি ইসরায়েলের পক্ষ নেয়া যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করতেও তিনি দ্বিধাবোধ করেননি। ইসরায়েলে নতুন করে অস্ত্র বিক্রির চুক্তিতে সোমবার (১৭ মে) বাইডেনের উদ্দেশে বলেন, আপনি আপনার রক্তাক্ত হাত দিয়ে ইতিহাস লিখছেন। এরদোয়ানের এমন বক্তব্যে ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে মার্কিন ররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস এক বিবৃতিতে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ও অন্যান্য তুর্কি নেতার উসকানিমূলক কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছে। এ ধরনের মন্তব্য সহিংসতা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর দিকে পাথর ছুড়লে প্রত্যুত্তরে ইসরায়েলি পুলিশ তাদের ওপর রাবার বুলেট ছোড়ায় ইসরায়েলকে ‘সন্ত্রাসী রাষ্ট্র’ বলে আখ্যা দিন এরদোয়ান। গত সপ্তাহ থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলি বর্বরতায় এখন পর্যন্ত ২২০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে; যার মধ্যে ৬৩ জনই শিশু। আহত হয়েছে সহস্রাধিক। অন্যদিকে এই সংঘাতে ইসরায়েলের ১০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। আর ২০১৪ সালে গাজায় ইসরায়েলের সবশেষ বড়সড় অভিযানে ২ হাজার ২৫১ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছিল। এদের ১ হাজার ৪৬২ জনই সাধারণ নাগরিক। উল্টোদিকে মাত্র ৬৭ জন ইসরায়েলে সেনা ও তাদের ৬ জন নাগরিক প্রাণ হারিয়েছিলেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply