sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » পোশাক শিল্প সংক্রান্ত বন্ডের কার্যক্রম সহজ করার অনুরোধ বিজিএমইএ’র




পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট বন্ডের কার্যক্রম সহজীকরণের জন্য কাষ্টমস বন্ড কমিশনারেটকে অনুরোধ জানিয়েছে তৈরি পোশাক মালিক সংগঠন বিজিএমইএ। মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে সংগঠনটি। গতকাল সোমবার এই সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়েছে জানিয়েছে বিজিএমইএ। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিজিএমইএর একটি প্রতিনিধিদল কাষ্টমস বন্ড কমিশনারেটের এর রাজধানীর সেগুন বাগানস্থ কার্যালয়ে কাজী মোস্তাফিজুর রহমান, কমিশনার, কাষ্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট (আপীল) কমিশনারেটের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। বিজিএমইএ প্রতিনিধিদলের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব এস এম মান্নান (কচি), সহ-সভাপতি জনাব মো. শহিদউল্লাহ আজিম, পরিচালক আসিফ আশরাফ, সাবেক পরিচালক মো. মুনির হোসেন, মিতালী গ্রুপের চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু ইউসুফ আব্দুল্লাহ ও স্প্যারো অ্যাপারেলস লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শোভন ইসলাম। এ সময় কাষ্টমস বন্ড কমিশনারেটের অতিরিক্ত কমিশনার খালেদ মোহাম্মদ আবু হোসেন এবং মো. জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন। আলোচনাকালে বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল বলেন, করোনা মহামারিতে পোশাক শিল্প ক্রান্তিলগ্ন অতিক্রম করছে। এ পরিস্থিতিতে অর্থনীতির চাকা সচল রাখা এবং প্রতিকূল পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পোশাক শিল্প উদ্যোক্তারা প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। উদ্যোক্তারা মনে করেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বন্ড কমিশনারেটের পক্ষ থেকে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বন্ড সংশ্লিষ্ট পোশাক শিল্পের কার্যক্রমগুলো সহজীকরণের উদ্যোগ নেয়া হলে তা শিল্পকে পরিস্থিতি মোকাবেলায় সহায়তা করবে। বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল পোশাক শিল্পের স্বার্থে বন্ডের কার্যক্রম সহজীকরণের জন্য কাষ্টমস বন্ড কমিশনারেটের কাছে কয়েকটি প্রস্তাবনা দিয়েছেন। করোনা মিডেল এ্যাড প্রস্তাবগুলো হলো বন্ড লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্য বন্ড লাইসেন্সবিহীন সহযোগী রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করতে আগের মত ইউপি জারী অব্যাহত রাখা। সূতা থেকে নীট গার্মেন্টস উৎপাদনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত কমিটি কর্তৃক অপচয় বৃদ্ধির হার পুনঃনির্ধারণ ও সংশোধন না হওয়া পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন পদক্ষেপ হিসেবে বিভিন্ন সংস্থার দেয়া সেবাগুলো ও বার্ষিক নিরীক্ষা, জরিমানা আরোপ ও উৎপাদন কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত না করে রপ্তানিতে সহযোগিতা করা। বন্ড লাইসেন্সে এইচএস কোড ও কাঁচামালের বিবরণ অন্তর্ভুক্তির জটিলতা নিরসন করা। তৈরী পোশাক শিল্পের ওভেন গার্মেন্টসের ক্ষেত্রে বার্ষিক নিরীক্ষার সময় আমদানি-রপ্তানির পরিমাণ নির্ধারণে কেজি’র পরিবর্তে আগের মত গজ বা মিটার বা স্ব-স্ব একক ব্যবহার করা। এছাড়াও পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট বন্ড কার্যক্রম সংক্রান্ত বিরাজমান সমস্যাবলী নিয়েও আলোচনা হয়। বিজিএমইএর এসব প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে কাষ্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট (আপীল) কমিশনারেটের কমিশনার কাজী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, প্রস্তাবনাগুলো গুরুত্ব সহকারে পর্যালোচনা করে যৌক্তিকতা অনুযায়ী সমাধানের ব্যবস্থা নেয়া হবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply