sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » শেষ ওভারে ১১ রান করতে পারেননি রাসেল!




টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সময়ের সেরা অল-রাউন্ডারদের একজন আন্দ্রে রাসেল। দলের প্রয়োজনে যেকোনো মুহূর্তে ব্যাটে-বলে জ্বলে ওঠাটাই নজর কেড়েছে বিশ্ব ক্রিকেটকে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে এক ওভারে ১১ রান করতে না পেরে দলকে জেতাতে ব্যর্থ হয়েছেন এই! ঘরের মাঠে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ আগেই নিজেদের করে নেয় উইন্ডিজ। বৃহস্পতিবার চতুর্থ ম্যাচ খেলতে নামে সেন্ট লুসিয়ায় ড্যারেন স্যামি স্টেডিয়ামে। ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় সফরকারীরা। ব্যাট করতে নেমে ওপেনার ম্যাথু ওয়েড ৫ রান করে ফেরেন ওশানে থমাসের বলে ক্যাচ দিয়ে। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অ্যারন ফিঞ্চ ও মিচেল মার্শ মিলে বাঁধেন লম্বা জুটি। দুজনেই তুলে নেন অর্ধশতক। ৬০ বলে দুজনের ১১৪ রানের জুটি ভাঙে ফিঞ্চের ৫৩ (৩৭) রানে বিদায়ে। পরের বলে মার্শকেও ৭৫ (৪৪) রানে বিদায় করেন হেইডেন ওয়ালশ। রানের চাকা হয়ে যায় ধীর। অ্যালেক্স ক্যারি শূন্য রানে, মইজিস হ্যানরিক্স ৬, অ্যাষ্টন টার্নার ৬ আর দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান ড্যান ক্রিস্টিয়ানের ২২ ও মিচেল স্টার্কের ৮ রানে ভর করে ৬ উইকেটে ১৮৯ রান তুলে ইনিংস শেষ করে অজিরা। উইন্ডিজের পক্ষে ৩ উইকেট নেন হেইডেন ওয়ালশ। ১টি করে উইকেট নেন ওশানে থমাস, আন্দ্রে রাসেল ও ফাবিয়ান অ্যালেন। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই অজি বোলারদের ওপর চড়াও হন লেন্ডল সিমনস ও এভিন লুইস। দুজনের জুটি থেকে আসে ৩০ বলে ৬২ রান। জুটি ভাঙে ৩১ (১৪) রান করা লুইসের বিদায়ে। ক্রিস গেইল এদিন সাজঘরে ফেরেন ১ রান করে। Image লড়াই চালিয়ে যান লেন্ডল সিমন্স। অর্ধশতক হাঁকিয়ে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যান দলকে। এর মাঝে আন্দ্রে ফ্লেচার ৬ ও নিকোলাস পুরান ফেরেন ১৬ রান করে। সিমন্স থামেন ৪৮ বলে ৭২ রান করে দলীয় ১৩২ রানের মাথায়। এরপর আন্দ্রে রাসেল ও ফাবিয়ান অ্যালেনের জুটি জয়ের আশা জাগাচ্ছিল উইন্ডিজদের। অ্যালেন একপাশ ধরে কচুকাটা করছিলেন অজি বোলারদের। রিলে ম্যারেদিথের এক ওভারে ৪টি ছয় হাঁকিয়ে বিদায় নেন শেষ বলে ২৯ রান করে (১৪) দলীয় ১৭৯ রানের মাথায়। অ্যালেন বিদায় নিলেও বিগ হিটার খ্যাত আন্দ্রে রাসেল। শেষ ওভারে যখন উইন্ডিজদের জয়ের জন্য ১১ রান লাগে তখন স্ট্রাইকে ছিলেন তিনি। অথচ মিচেল স্টার্কের করা ওভারে একে একে ৫টা বলই ডট। শেষ ওভারে ছয় হাঁকালেও কাজে আসেনি আর। ৬ উইকেটে ১৮৫ রান তুলে ৪ রানে হারে ক্যারিবীয়রা। অজিদের পক্ষে ৩ উইকেট নেন স্টার্ক, ২ উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা ও ১ উইকেট নেন চার ওভারে ৫৭ রান দেয়া রিলে ম্যারেদিথ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply