sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » নতুন প্রধানমন্ত্রী পেল হাইতি




রাজনৈতিক সংকটের মধ্যেই নতুন প্রধানমন্ত্রী পেল ক্যারিবীয় দেশ হাইতি। দুই সপ্তাহেরও কম সময় আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইসি গুপ্তহত্যার শিকার হয়েছেন। এরপর ব্যাপক রাজনৈতিক বিভাজন ও উদ্বেগের মধ্যেই মঙ্গলবার (২০ জুলাই) রাজধানী পোর্ট অব প্রিন্সে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন অ্যারিয়াল হেনরি। একই দিন মোইসির জন্য আনুষ্ঠানিক স্মরণানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। খবর আল-জাজিরার। নতুন প্রধানমন্ত্রী পেল হাইতি এর আগে ওয়াশিংটন পোস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ক্ষমতা ছেড়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন অন্তবর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী ক্লোডি জোসেফ। গুপ্তহত্যার শিকার হওয়ার দুদিন আগে অ্যারিয়াল হেনরিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিলেন মোইসি। সম্প্রতি তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি পেয়েছেন। এবার দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন। মোইসির অধীন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন জোসেফ। হেনরিকে নিয়োগ দেওয়ার আগে তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছিলেন। এমনকি হেনরিকে তিনি স্বীকৃতি দিতেও চাচ্ছিলেন না। এ পরিস্থিতিতে গত শনিবার আন্তর্জাতিক কূটনীতিকদের একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রুপ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে হেনরিকে সমর্থন করে তাকে নতুন সরকার গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। ৭১ বছর বয়সী নিউরোসার্জন হেনরি বলেন, হাইতি যেসব সমস্যার মুখোমুখি তার সমধানে রাজনৈতিক ঐকমত্য সৃষ্টিতে সমাজের বিভিন্ন অংশের সঙ্গে আমি বৈঠক করব। এসব সমস্যার স্থায়ী সমাধান বের করে নিয়ে আসতে হবে। গত ৭ জুলাই রাজধানীতে নিজ বাসভবনে গুপ্তহত্যার শিকার হয়েছিলেন হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইসি। ওইদিন দুপুর ১টার দিকে প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত বাসভবন পোর্ট-আউ-প্রিন্সে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা ঝড়ের বেগে প্রবেশে করে হামলা করে। এতে প্রেসিডেন্ট নিহত হন। ফার্স্ট লেডি মার্টিন মোইসি আহত হয়েছেন। দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় মিয়ামি থেকে ৬৭৫ মাইল দূরে ক্যারেবীয় দরিদ্র দ্বীপরাষ্ট্রটির রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ব্যাপক অস্থিরতা রয়েছে। একনায়কতন্ত্র ও সামরিক অভ্যুত্থানের দীর্ঘ ইতিহাস আছে হাইতির। দেশটিতে গণতন্ত্র কখনোই শিকড় গাড়তে পারেনি। ১১ বছর আগে বিধ্বংসী ভূমিকম্পের পর দেশটির পুনর্গঠন হয়নি। সামাজিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতি আরও খারাপ অবস্থার দিকে গেছে। যদিও হাইতির পুনর্গঠনে কোটি কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা এসেছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply