sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » মেসির বিদায়ের দিনে য়্যুভেন্তাসকে হারাল বার্সা




লিওনেল মেসি চলে যাচ্ছেন বার্সেলোনা ছেড়ে, এ দিনই কাতালান ক্লাবটি হুয়ান গাম্পার ট্রফির ফাইনালে হারের স্বাদ দিল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর য়্যুভেন্তাসকে। সোমবার (৯ আগস্ট) ইয়োহান ক্রুইফ স্টেডিয়ামে ৩-০ গোলে হেরেছে রোনালদোর দল, শিরোপা বার্সার শোকেসে। এ নিয়ে সর্বশেষ নয়টি আসরে গাম্পার ট্রফির চ্যাম্পিয়ন হলো বার্সেলোনা। টানা এই শিরোপা জয়ের শুরুটা হয়েছিল ২০১৩ সালে। লিওনেল মেসি বার্সা থেকে শেষ বিদায় না নিলে হয়তো ইতালিয়ান ক্লাবটি এবং চির প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোর বিপক্ষে ঠিকই খেলতেন। আগে থেকেই এ নিয়ে ফুটবলপ্রেমীদের মধ্য উত্তেজনার অন্ত ছিল না। দু’জনার মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে বলেই কিনা! কিন্তু তা আর হলো কই! য়্যুভেন্তাস যখন বার্সায় এসেছে তখনই যে সংবাদ সম্মেলনে শেষ বিদায় বলতে ব্যস্ত মেসি। তাই রোনালদো একাই খেললেন, দেখা পেলেন না মেসির। রোনালদো-মেসির দু’জনার উপস্থিতে ম্যাচটি যেমন হতো তার তুলনায় এ লড়াইকে পানসে বলা যায় বৈকি। মেসি বার্সা ছাড়া হলেও য়্যুভেন্তাসের হয়ে শুরু থেকেই খেলেছেন পর্তুগিজ তারকা। তবুও ছায়া হয়েই রইলেন রোনালদো। দুই দলেই বড় বড় তারকারা একাদশে ছিলেন। বার্সার দিকে এই তালিকায় শুধু বাদ পড়েছেন সার্জিও আগুয়েরো ও মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন। এ ছাড়া মেম্ফিস ডিপাই, অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান, সার্জিও বুসকেটসরা সবাই ছিলেন। ক্রুইফ স্টেডিয়ামের ফাইনালে খেলাও জমেছে সমানে সমান। বল দখল ও পাসের হিসাবে পিছিয়ে থাকলেও তুরিনের বুড়িরা বার্সার জাল বরাবর শট নিয়েছে প্রতিপক্ষের সমানসংখ্যক। বার্সার অন টার্গেট শট ও অফ টার্গেট শত দুটিই য়্যুভেন্তাসের সমান, ১৩ ও ৬। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটের সময় বার্সার নতুন স্ট্রাইকার ডিপাই এগিয়ে নেন দলকে। ইউসুফ দেমিরের পাস থেকে বল পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ডাচ তারকা। পরের গোলে ডিপাই সহযোগিতা করেছেন সতীর্থ মার্টিন ব্রাথওয়েটকে। বার্সেলোনার শেষের গোলটি তরুণ রিকুই পুজের। সব মিলিয়ে গাম্পার ট্রফিতে মোট ৪৪ বার চ্যাম্পিয়ন বার্সা। বার্সা ছাড়া একের অধিক চ্যাম্পিয়ন হওয়া একমাত্র ক্লাব এওফসি কোলন। শেষ নয়বারের মধ্য বার্সেলোনা ২০১৩ সালে হারিয়েছিল সান্তোসকে। এরপর যথাক্রমে লেওন, রোমা, সাম্পদোরিয়া, চাপেকোয়েন্স, বুকা জুনিয়র্স, আর্সেনাল ও এলচেকে হারের স্বাদ দিয়েছে দলটি। শেষ নয়বারের মধ্য বার্সার সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়টি ২০১৩ সালে সান্তোসের বিপক্ষে, ৮-০ গোলের ব্যবধানে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply