sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » প্রতি রাতে মেসির হোটেলের ভাড়া ২০ লাখ




একদিন আগেই প্যারিসের ক্লাব পিএসজিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন সময়ের সেরা তারকা লিওনেল মেসি। গত বুধবার পরিবার নিয়ে প্যারিসে পা রেখেছেন আর্জেন্টাইন তারকা। পিএসজির সঙ্গে চুক্তি সেরে পরিবার নিয়ে প্যারিসের হোটেল লে রয়্যাল মনচিআওতে উঠেছেন মেসি। প্যারিসে বাসা খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত আপাতত কয়েকদিন এই হোটেলেই সময় কাটবে রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলারের। দ্য মিররের খবর অনুযায়ী, লে রয়্যাল মনচিআওতে হোটেলে মেসিকে রাখতে প্রতি রাতে ১৭ হাজার পাউন্ড ভাড়া গুনছে পিএসজি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ২০ লাখ টাকা। হোটেল লে রয়্যাল মনচিআওর দৃশ্য। ছবি : সংগৃহীত অবশ্য প্রতি রাতে ২০ লাখ টাকা দেওয়ার মতোই হোটেলই লে রয়্যাল মনচিআও। প্যারিসের খুব বিখ্যাত হোটেল এটি। যেখানে বিখ্যাত ব্যক্তিরাও প্যারিস ভ্রমণে আসলে থাকেন। সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল, ওয়াল্ট ডিজনি ও রবার্ট ডি নিরো সহ বহু বিখ্যাত মানুষ এই হোটেলে থেকেছেন। ২০১৭ সালে নেইমার পিএসজিতে আসার পর তাঁকেও এই হোটেলেই রাখা হয়েছে। দ্য সান বলছে, পাঁচ তারকা হোটেলটিতে সুইমিং পুল, ব্যক্তিগত সিনেমা হল, ছয়টি রেস্তোরাঁসহ রয়েছে সব ধরনের সুযোগ সুবিধা। লিওনেল মেসি ওই হোটেলের বারান্দা থেকেই হাত নাড়িয়ে নতুন ভক্তদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। হোটেল লে রয়্যাল মনচিআওর দৃশ্য। ছবি : সংগৃহীত মেসি তাঁর পরিবারসহ এই হোটেলে পা রাখায় হোটেলটির সোশ্যাল মিডিয়ার অনুসারি হু হু করে বাড়ছে। গতকাল হোটেলটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেসির একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। ওই ভিডিওর পর আরও বাড়ছে হোটেলটির ফলোয়ার। দুদশকের বেশি সময় বার্সেলোনায় খেলে অনেক সাফল্য পেয়েছেন লিওনেল মেসি। ১০টি লা লিগা, ৪টি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং ছয়টি কোপা দেল রেসহ মোট ৩৩টি শিরোপা জয় করেছেন, যা বার্সেলোনার ইতিহাসে কোনো খেলোয়াড়ের পক্ষে সর্বোচ্চ। সেই মেসি কাতালান ক্লাবটি ছেড়ে এখন পিএসজিতে। প্যারিসের ক্লাবটির হয়েও সাফল্য পেতে চান, জিততে চান চ্যাম্পিয়নস লিগ। হোটেল লে রয়্যাল মনচিআওর দৃশ্য। ছবি : সংগৃহীত গতকাল বুধবার পিএসজিতে প্রথম সংবাদ সম্মেলনে দরুণ সব আশাবাদের কথা শোনান মেসি। আর্জেন্টাইন তারকা বলেন, ‘পিএসজি এই মৌসুমে দুর্দান্ত কিছু খেলোয়াড় দলে এনেছে। গত কয়েক বছর চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার ক্ষেত্রে অনেকদূর এগিয়েছিল তারা। আমি এই ক্লাবে এসেছি এই লক্ষ্য নিয়েই। নিজের সেরাটা দিয়ে আমি পিএসজির হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার চেষ্টা করব। আমার লক্ষ্য আরেকটা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়, আর আমার মনে হয় আমি সে জন্য আদর্শ জায়গাতেই এসেছি।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply