sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » টি-টোয়েন্টিতে সেরা দশে মুস্তাফিজ




ঘরের মাঠে বোলিং তোপে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের করেছেন কুপোকাত। এবার সেটিরই পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের অন্যতম বোলিং ভরসা মুস্তাফিজুর রহমান। টি-টোয়েন্টির বোলিং র‍্যাংকিংয়ে অনেক উন্নতি করেছেন ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। এক লাফে ২০ ধাপ এগিয়ে শীর্ষ দশে ঢুকে গেছেন তিনি। ৩০তম থেকে ‘ফিজ’ উঠে এসেছেন দশম স্থানে। এই বাঁহাতি পেসারের বর্তমান রেটিং পয়েন্ট ৬১৯। দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনার তাবরিজ শামসি ৭৯২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে টি-টোয়েন্টি বোলার র‍্যাংকিং তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন। এরপর রয়েছেন শ্রীলঙ্কার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, আফগানিস্তানের রশিদ খান, ইংল্যান্ডের আদিল রশিদ, আফগান মুজিবুর রহমান জাদরান, কিউই পেসার টিম সাউদি, অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার অ্যাশটন অ্যাগার এবং অ্যাডাম জাম্পা। চার-ছক্কা তো দূরের কথা, মুস্তাফিজের বল ব্যাটে লাগানোটাই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে প্রতিপক্ষ শিবিরের ব্যাটসম্যানদের জন্য। কিভাবে খেললে তার বিপক্ষে সফল হওয়া সম্ভব, দীর্ঘ পড়াশোনা করেও তার উত্তর মিলছে না। বিশ্ব ক্রিকেটে বিস্ময় বালক হিসেবে প্রত্যাবর্তন ঘটেছিল মুস্তাফিজের। আইপিএল মাতিয়ে বিশ্বজুড়ে পরিচিতি পান ‘ফিজ’ নামে। কিন্তু ইনজুরি আর ফর্মহীনতায় যেন নিজেকেই হারিয়ে ফেলেছিলেন মুস্তাফিজ। ক্রিকেটবোদ্ধাদের অনেকেই বলেছিলেন, ‘মুস্তা নেভার কামিং ব্যাক’ অর্থাৎ আর কখনো আগের মুস্তাফিজকে দেখা যাবে না। কিন্তু প্রতিনিয়ত নিজেকে ছাড়িয়ে গিয়ে সমালোচকদের বল হাতেই জবাব দিচ্ছেন ফিজ। ব্যাটসম্যানদের জন্য ধুমধারাক্কা ফরম্যাট টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম এই সংস্করণে যতটা চার-ছক্কার ফুলঝুরি দেখা যায়, বাকি দুই ফরম্যাটে ততোটা নয়। কম ইকোনমির বোলারদের এই ফরম্যাটে বেশ কদর। বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে এমন বোলার মুস্তাফিজুর রহমান। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মুস্তাফিজের বোলিং ফিগার দেখে বোঝার উপায় নেই, এটা টি-টোয়েন্টির বোলিং। তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৪-০-৯-০, চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে ৪-১-৯-২। রান খরচায় নজর দিলে টেস্ট বোলিং মনে হতে পারে। এমনকি টেস্টেও এতো কম ইকোনমি সচরাচর দেখা যায় না। সদ্য শেষ হওয়া সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার কাছে মুস্তাফিজ রীতিমতো যমদূত হয়ে উঠেন। মুস্তাফিজ বোলিং প্রান্তে গেলেই পাল্টে যায় অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং পরিকল্পনা। অন্য বোলারদের বিপক্ষে চার-ছক্কা মারার চেষ্টা করছেন সফরকারী ব্যাটসম্যানরা, সফলও হচ্ছেন কেউ কেউ। কিন্তু মুস্তাফিজের ডেলিভারি বুঝতেই সময় শেষ। তার স্লোয়ার-কাটারে রীতিমতো নাভিশ্বাস অবস্থা অজি ব্যাটসম্যানদের। মুস্তাফিজ প্রসঙ্গে অজি ব্যাটসম্যান ড্যান ক্রিশ্চিয়ান বলেন, মুস্তাফিজ হচ্ছেন গতিময় রশিদ খান। আফগান লেগ স্পিনারের কথা উল্লেখ করে ক্রিশ্চিয়ান বলেন, ‘তার বল খেলাটা দারুণ গতিময় রশিদ খানকে খেলার মতো। তার বল কেমন হবে, বোঝার উপায় নেই। অবশ্যই আমরা কোনো সমাধান বের করতে পারিনি। সত্যিই দুর্দান্ত বোলিং, কন্ডিশনটাকে নিজের পক্ষে দারুণভাবে কাজে লাগাচ্ছে সে।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply