sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে ইউনিসেফ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বার্তা




করোনা মহামারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো চালু রাখতে শিক্ষক ও স্কুলের কর্মীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও জাতিসংঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফ। সোমবার (৩০ আগস্ট) জাতিসংঘের এই দুই সংস্থার বিবৃতিতে এমন আহ্বান জানানো হয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে ইউনিসেফ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বার্তা বিবৃতিতে বলা হয়, গ্রীষ্মের ছুটির পর স্কুলগুলো আবার খুলতে যাচ্ছে। স্কুল খোলার পর শিক্ষার্থীদের ক্লাসরুমে উপস্থিত থাকার বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ কারণে শিক্ষক ও কর্মচারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দিতে হবে। এদিকে ইউরোপজুড়ে ফের বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। অনেকে দেশ বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ায় তৈরি হয়েছে সংকট। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করে জানিয়েছে, ইউরোপে আগামী ১ ডিসেম্বরের মধ্যে কোভিডে আরও ২ লাখ ৩৬ হাজার মানুষের প্রাণহানির আশঙ্কা রয়েছে। করোনা মহামারিতে এ পর্যন্ত ইউরোপেই শুধু ১৩ লাখ মানুষ মারা গেছেন। সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিকে গভীর উদ্বেগজনক বলেছে সংস্থাটি। ফ্রান্সে রেস্টুরেন্টসহ কয়েকটি পেশায় কর্মরত ২০ লাখ মানুষের জন্য স্বাস্থ্য পাস বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কাজের উদ্দেশে ঘর থেকে বের হলেও এই পাস দেখাতে হবে। আরও পড়ুন: করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত করোনা নিয়ন্ত্রণে বিশ্বে সবার আগে বুস্টার ডোজ দিচ্ছে ইসরায়েল। এদিকে জাপানে সরবরাহ করা যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি মডার্নার করোনাভাইরাসের টিকায় নতুন করে দূষণকারী ধাতব পদার্থ পাওয়া গেছে। ফলে মডার্নার ১০ লাখ ডোজ টিকা বাতিল করেছে দেশটি। এ ছাড়া মডার্নার টিকা প্রয়োগ স্থগিত করেছে জাপান সরকার। অন্যদিকে ভারতে ধীরে ধীরে বাড়ছে সংক্রমণ। এতে তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা আরও জোরালো হচ্ছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন আরও ৭ হাজার ৫১২ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ১৫ হাজার ৮৭৩ জন। এ নিয়ে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৫ লাখ ২৩ হাজার ১৭৩ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২১ কোটি ৭৮ লাখ ৭৮ হাজার ১৯ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ কোটি ৪৭ লাখ ৩১ হাজার ৬০১ জন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply