sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » নিউজিল্যান্ডে সুপারমার্কেটে ‘সন্ত্রাসী হামলা’, অভিযুক্ত হামলাকারী নিহত




নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে একটি সুপারমার্কেটে ছুরিকাঘাতে অন্তত ছয় জনকে আহত করার পর এক জন ‘হিংস্র উগ্রবাদীকে’ পুলিশ গুলি করে হত্যা করেছে। ছবি : সংগৃহীত নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে একটি সুপারমার্কেটে ছুরিকাঘাতে অন্তত ছয় জনকে আহত করার পর এক জন ‘হিংস্র উগ্রবাদীকে’ পুলিশ গুলি করে হত্যা করেছে। আজ শুক্রবার এ ঘটনাকে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। এক সংবাদ সম্মেলনে জেসিন্ডা আরডার্ন জানান, পুলিশের নজরদারিতে থাকা এক শ্রীলঙ্কার নাগরিক শুক্রবারের সন্ত্রাসী হামলাটি চালিয়েছে। জেসিন্ডা আরডার্ন আরও জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হামলাকারীর পরিচয় জানা যায়নি। তবে সে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সন্ত্রাসী মতাদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে হামলা করেছে বলে আরডার্ন দাবি করেন। হামলার ৬০ সেকেন্ডের মধ্যেই পুলিশের গুলিতে হামলাকারী নিহত হয়েছে বলেও জানান আরডার্ন। নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, আদালতের নির্দেশের কারণে হামলাকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না। তবে তিনি জানান, হামলাকারী ২০১১ সালে নিউজিল্যান্ড আসে। এবং ২০১৬ সালে জাতীয় নিরাপত্তার ইস্যু হয়ে দাঁড়ান। জেসিন্ডা আরডার্ন জানান, হামলাকারীর আদর্শ নিয়ে উদ্‌বেগের কারণ থাকায় তার ওপর নজরদারি রাখা হচ্ছিল। একাধিক সংস্থার তালিকাসহ সন্ত্রাসীর তালিকায় তার নাম ছিল বলেও তিনি জানান। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিউলিনের লিনমলে এক ব্যক্তি বড় একটি ছুরি নিয়ে হামলা করা শুরু করে। মুর্হূতেই সেখানে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। লোকজন সুপারমার্কেট থেকে বের হতে ছোটাছুটি করতে থাকে। এর মধ্যেই গুলির শব্দ শোনা যায়। এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, অকল্যান্ড পুলিশ কমিশনার অ্যান্ড্রু কস্টার তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, অভিযুক্ত ব্যক্তি একাই এ হামলা চালিয়েছে এবং পুলিশ আত্মবিশ্বাসী যে, জনসাধারণের জন্য আর কোনো হুমকি নেই। ‘আমরা তাকে পর্যবেক্ষণ করার জন্য যথাসম্ভব সবকিছু করছিলাম এবং প্রকৃতপক্ষে এটা সত্য যে, আমরা দ্রুত হস্তক্ষেপ করতে সক্ষম হয়েছি, প্রায় ৬০ সেকেন্ডের মধ্যে,’ যোগ করেন অ্যান্ড্রু কস্টার






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply