Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » তালেবানকে স্বীকৃতি দিতে তাড়াহুড়ো করবে না পাকিস্তান




পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরাইশি বলেছেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের পুনর্গঠনে আন্তর্জাতিক সহায়তা ও স্বীকৃতি পেতে হলে নতুন তালেবান সরকারকে আন্তর্জাতিক মতামত ও বিধিমালা আরও বেশি গ্রহণ ও তা বাস্তবায়নে স্পর্শকাতর হতে হবে। জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন তিনি। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) কুরাইশি বলেন, তালেবানকে স্বীকৃতি দেওয়ার আগে আফগানিস্তানের ঘটনাবলী পর্যালোচনা করবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। তিনি বলেন, বর্তমান পর্যায়ে কোনো দেশ আফগানিস্তানের নতুন সরকারকে স্বীকৃতি দিতে তাড়াহুড়ো করবে বলে মনে হচ্ছে না। তালেবানের উচিত এ বিষয়ে নজর রাখা। তারা যদি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে চায়, তবে আন্তর্জাতিক মতামত আরও বেশি করে মেনে নিতে হবে এবং স্পর্শকাতর হতে হবে। কুরাইশি বলেন, পাকিস্তানের উদ্দেশ্য হচ্ছে আফগানিস্তানে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করা। তারা যদি সেটি অর্জন করতে চায়, তবে তালেবানকে একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠন করতে হবে। আফগান তালেবান তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবে বলেই আশা প্রকাশ করেন কুরাইশি। তারা নারীদের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে লেখাপড়ার সুযোগ করে দেবেন বলেও মনে করেন তিনি। এছাড়া আফগান সরকারের জব্দ করা অর্থ ফেরত দিতে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য সরকারগুলোর কাছে আহ্বান জানান পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, এই অর্থ আফগানিস্তানের এবং তা দেশটির জনগণের জন্যই খরচ করা হবে। কুরাইশি বলেন, আফগানিস্তানে এখন যাতে বড় ধরনের অর্থনৈতিক পতন না ঘটে, সেদিকেই বেশি নজর দিতে হবে। কারণ এতে সেখানে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিতে পারে। তিনি বলেন, একদিকে সংকট এড়াতে আপনারা তাদের জন্য তহবিল সংগ্রহ করছেন, অন্যদিকে তাদের নিজেদের অর্থ জব্দ করে রেখেছেন। আমি মনে করি, অর্থ জব্দ করার মাধ্যমে তাদের অবস্থান উন্নতি করা সম্ভব হবে না। আমি বিশ্বশক্তিগুলোর কাছে আহ্বান জানাচ্ছি, যাতে তারা নিজেদের নীতির পর্যালোচনা করেন এবং জব্দ করা অর্থ ছেড়ে দেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, অর্থ ছাড়ের মাধ্যমে তালেবানের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে এবং তাদের ইতিবাচক ব্যবহারের দিকে নিয়ে যাবে। আফগানিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাড়ে ৯০০ কোটি মার্কিন ডলার জব্দ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply