sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু আওয়ামী লীগের’




আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ অর্থাৎ ২০২৩ সালের শেষ অথবা ২০২৪ সালের শুরুতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি শুরু করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। আর নির্বাচনে প্রস্তুতি হিসেবে সাংগঠনিক বিষয়গুলোর উপর জোরাল পদক্ষেপ নিচ্ছে দলটি। ‘দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু আওয়ামী লীগের’ আর এক্ষেত্রে শৃঙ্খলা রক্ষায়ও কঠোর অবস্থান যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দলের প্রধান। আগামীতে যে কোনো নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে প্রার্থী হলে তার বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গেই নেওয়া হবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ প্রায় এক বছর পর দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হল আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক। বৃহস্পতিবার (০৯ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রী সরকারি বাসভবন গণভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিককে দলীয় প্রধানের কঠোর অবস্থান ও আলোচ্য বিষয়গুলো সম্পর্কে ব্রিফিং করেন। আরও পড়ুন: জনগণের জীবনমান উন্নয়নে সংসদীয় কার্যক্রম জোরদার করতে হবে: স্পিকার ওবায়দুল কাদের বলেন, বৈঠকের মূল ফোকাস ছিল সাংগঠনিক বিষয় এবং পরবর্তী নির্বাচনে প্রস্তুতির নিয়ে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কেউ দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে কোনো নির্বাচনে প্রার্থী হলে তার বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া ব্যাপারে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘পাবনায় পৌরসভা নির্বাচনে ২০ জনের মতো বিদ্রোহ করেছিল। তারা ক্ষমা চেয়ে নেত্রী বরাবর একটা চিঠি দিয়েছিল। নেত্রী তাদের ক্ষমা করে দিয়েছেন। একই সঙ্গে নেত্রী এও বলেছেন, যারা দলের শৃঙ্খলার বিরুদ্ধে কাজ করছে বিভিন্ন জায়গায়, তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে শাস্তিমূলক ব‌্যবস্থা নিতে হবে। কাউকে কোনো ব‌্যাপারে ছাড় দেওয়া যাবে না। দীর্ঘদিন পর অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে আলোচনায় সাংগঠনিক পুনর্গঠন প্রক্রিয়া এবং আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রস্তুতির বিষয়টি প্রাধান‌্য দেয়া হয়েছে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের ইশতেহারে কোন কোন বিষয়গুলো হালনাগাদ করতে হবে, তা চিহ্নিত করতে উপকমিটিগুলোকে বলা হয়েছে। এছাড়া দলের বর্তমান সাংগঠনিক পরিস্থিতির বিবরণ সভায় তুলে ধরেন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদকরা। ওবায়দুল কাদের বলেন, উপস্থিত সাংগঠনিক সম্পাদকরা লিখিত রিপোর্ট করেছেন। তাদের এলাকা ইউনিয়ন-ওয়ার্ড পর্যন্ত বিস্তারিত রিপোর্ট নেত্রীর সামনে উপস্থাপন করেছেন এবং প্রকৃত অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদকদের রিপোর্টের ভিত্তিতে যেখানে যেখানে অধিকতর দ্রুত সমস্যা সমাধান করার দরকার, তা করার জন্য তিনি নির্দেশ দিয়েছেন। কিছু কিছু ছোট খাটো কলহ বিবাদ আছে, সেগুলো মীমাংসা করার ব্যাপারেও নির্দেশনা দিয়েছেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, “অপপ্রচার এবং ষড়যন্ত্র চলছে সরকারের বিরুদ্ধে। যতই নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে ততই অপপ্রচারের মাত্রা বাড়ছে। এসব অপপ্রচারের জবাব দিতে হবে। চক্রান্তমূলক তৎপরতার বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক‌্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ করতে হবে।” মহামারীকালে মানুষের পাশে যেভাবে দলের নেতাকর্মীরা দাঁড়িয়েছে, তাতে শেখ হাসিনা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলে জানান ওবায়দুল কাদের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply