sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে তাইওয়ানের সামরিক মহড়া




চীনের সঙ্গে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই সামরিক মহড়া চালালো তাইওয়ান। সম্প্রতি বেশ কয়েকবার আকাশসীমা লঙ্ঘন করে চীনা যুদ্ধবিমানের মহড়ার পাল্টা জাবাব হিসেবে এ মহড়া বলে জানিয়েছে তাইপে। চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে তাইওয়ানের সামরিক মহড়া তাইওয়ানের একটি সামরিক ঘাঁটি থেকে উড্ডয়ন করছে একের পর এক যুদ্ধবিমান। উদ্দেশ্য শত্রুপক্ষের যুদ্ধবিমানকে সতর্ক করা কিংবা ধাওয়া দেয়া। হামলা করতে চাইলে তা প্রতিহত করা। বুধবার তাইওয়ানের সামরিক ঘাঁটিতে এমন একটি মহড়া চলানো হয়। নিজস্ব প্রযুক্তির যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের এফ-সিক্সটিন ভি, ফ্রান্সের তৈরি মিরাগসহ অত্যাধুনিক সব যুদ্ধবিমানের মহড়া চালানো হয়। এসময় বিমান ঘাঁটিতে উপস্থিত থেকে মহড়া পর্যবেক্ষণ করেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন। সম্প্রতি আকাসীমা লঙ্ঘন করে চীনের ১৯টি যুদ্ধবিমান তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে ঢুকে পড়ে। ওই বহরে পারমাণবিক বোমা হামলায় সক্ষম অন্তত চারটি এইচ-সিক্স যুদ্ধবিমানও ছিল। বেইজিংয়ের ঐ তৎপরতার মধ্যেই সামরিক মহড়া চালালো তাইওয়ান। আরও পড়ুন: তাইওয়ানের আকাশ ও সমুদ্রে বেড়েছে চীনা তৎপরতা তাইওয়ানের দাবি, চীনের আগ্রাসন রুখে দিতেই নিজেদের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার অংশ হিসেবে চালানো হয় এ মহড়া। তবে সামরিক এ মহড়ার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি বেইজিং। এর আগে গত ১৫ জুন চীনা বিমান বাহিনীর ২৮টি যুদ্ধবিমান তাইওয়ানের আকাশে ঢুকে পড়েছিল। গণতান্ত্রিকশাসিত তাইওয়ান আন্তর্জাতিক সমর্থন চাইলে অসন্তোষ থেকেই চীন এমন অভিযান পরিচালনা করছে। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাইওয়ান সম্পর্ক জড়াতে চাইলে চীনারা বৈরী আচরণ করছে। তাইওয়ানকে শীর্ষ অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোর মধ্যে একটি যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু নতুন মিশনের মাধ্যমে চীন কী অর্জন করতে চাইছে, তা পরিষ্কার হওয়া সম্ভব হয়নি। গত মাসে তাইওয়ান প্রণালী দিয়ে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ও কোস্ট গার্ড কাটার অতিক্রম করেছিল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply