Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ৩৫ বছর ধরে ডাকাতি করা হেমন্তের অনুরোধ




তিন যুগ ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছে এই ডাকাত, করেছেন ৫০০ এর বেশি ডাকাতি। এবার সেই ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতীয় পুলিশ। সম্প্রতি তার একটি বড় ডাকাতির পরিকল্পনা ছিল, তার আগেই তাকে ধরে ফেলল পুলিশ। সোমবার (৪ অক্টোবর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ওড়িষ্যা থেকে হেমন্ত দাস নামে এক ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে ২০১৮ সালে একবার ও ২০২০ সালে একবার গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তাকে। কিন্তু বেশিদিন হাজতে কাটাতে হয়নি তাকে। বেরিয়েই আবারও ডাকাতির খাতায় নাম লিখিয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে হেমন্ত বলেছে, ‘আমি ১৯৮৬ সাল থেকে ডাকাতি শুরু করেছি। আমি অনেক বড় বড় ডাকাত দলের সঙ্গে কাজ করেছি। সেখান থেকে অনেক কিছু শিখেছি। আমি আমার ৩৫ বছরের ডাকাত জীবনে চার থেকে পাঁচ কোটি টাকা উপার্জন করেছি। আমি বিলাসবহুল জীবন কাটাতে এই টাকা খরচ করেছি। শুধু আপনাদের অনুরোধ করছি, আমার মতো হবেন না।’ আরও পড়ুনঃ সাধারণ মানুষের সঙ্গে রেস্টুরেন্টে কফি খেলেন বাইডেন ভুবনেশ্বররের পুলিশ কর্মকর্তা মশঙ্কর দাস জানিয়েছেন, ১৯৮০ সালে হেমন্ত কলেজে পড়াকালীন একবার একটি ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। সেই সময় পুলিশের খাতায় তার নাম ওঠে। সেই অপরাধে জেলে থাকাকালীন ডাকাতদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে ওঠে হেমন্তের। ওড়িষ্যা ও বাইরের একাধিক রাজ্যে অসংখ্য ডাকাতি ও চুরির ঘটনায় সে যুক্ত। শুধু ভুবনেশ্বরেই ১০০ ডাকাতির সঙ্গে হেমন্ত যুক্ত। সব মিলিয়ে ৫০০ ডাকাতির ঘটনায় তার নাম জড়িয়েছে। ভারতীয় পুলিশ জানিয়েছে, ডাকাতির টাকায় বিলাসবহুল জীবন কাটাত হেমন্ত। ওই টাকায় সে ছুটি কাটাতে যেত। পাঁচ তারকা হোটেলে থাকত। সামান্য সিঁদকাঠি দিয়েই চুরি ডাকাতি করতে পারদর্শী ছিল হেমন্ত। সেই কারণেই তার নাম হয়েছিল ‘ক্রোবার ম্যান’।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply