Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » যুক্তরাষ্ট্রে পালিত হচ্ছে থ্যাংকসগিভিং ডে




যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) পালিত হচ্ছে কৃতজ্ঞতাজ্ঞাপন দিবস বা থ্যাংকসগিভিং ডে। সৃস্টিকর্তার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপনে প্রতিবছর নভেম্বর মাসের চতুর্থ বা শেষ বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রে সরকারিভাবে দিবসটি উদযাপিত হয়ে আসছে। থ্যাংকসগিভিং দিবসে এবার নিজ হাতে খাবার বণ্টন করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ফার্স্টলেডি ড. জিল, ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও ও সেকেন্ড জেন্টেলম্যান ডোগ এমহফ। যুক্তরাষ্ট্রে নির্মল আনন্দের একটি দিন আজ। ‘তোমার প্রভুকে ধন্যবাদ জানাও, ধন্যবাদ জানাও তোমার স্বজন-প্রতিবেশীকে’—এই মূলমন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে মার্কিন নাগরিকেরা পালন করে থ্যাংকসগিভিং ডে। সরকারি ছুটির দিনে দিবসটি পালনে ঘরে ঘরে চলে নানা উৎসব আয়োজন। এবারের আয়োজন স্মরণীয় রাখতে নিজ হাতে জো বাইডেন, ড. জিল, কামলা হ্যারিস ও ডোগ এমহফ মঙ্গলবার ওয়াশিংটনের এক কম্যুনিটি কিচেনে উপস্থিত থেকে এতিমখানা, বৃদ্ধাশ্রম ও দরিদ্র নাগরিকদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন। থ্যাংকসগিভিং ডে-কে বলা হয় ধন্যবাদ বা কৃতজ্ঞতাজ্ঞাপন দিবস। ভ্রাতৃত্ব ও সৌহার্দ্যের নিদর্শন। এ দিন মূলত মহান সৃষ্টিকর্তার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হলেও সময়ের সাথে সাথে সৃষ্টিকর্তার পাশাপাশি এখন একে অন্যকে ধন্যবাদ জানানোর প্রচলন শুরু হয়েছে। দেশটির অন্যতম শ্রেষ্ঠ জাতীয় উৎসবের এ দিসবটিতে মার্কিনিরা মেতে ওঠেন ঐতিহ্যবাহী টার্কি ভোজে। প্রতিটি ঘরেই চলে টার্কি লাঞ্চ আর ডিনার। থ্যাংকসগিভিং ডে-কে অনেকে আবার দ্য টার্কি ডেও বলে থাকেন। আমেরিকার ন্যাশনাল টার্কি ফেডারেশনের এক জরিপে জানা যায়, শতকরা ৮৮ জন আমেরিকান থ্যাংকস গিভিং-এ ৫০ মিলিয়ন টার্কি খেয়ে থাকেন। সারা বছরে যুক্তরাষ্ট্রে যে পরিমাণ টার্কি বিক্রি হয়, তার ৭৭ শতাংশ কেবল এ দিবস উপলক্ষ্যে বিক্রি হয়ে থাকে। থ্যাংকসগিভিং ডে-র ইতিহাস নিয়ে কিছুটা মতভেদ থাকলেও অধিকাংশ ঐতিহাসিকের দ্বারা সমর্থিত তথ্য মতে, ১৬২১ সালের এক হেমন্তে আমেরিকার আদি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে প্রধানত ইংল্যান্ড থেকে আগত যাজকদের এক শুভক্ষণে পরস্পরের মধ্যে উৎপাদিত শস্য এবং পণ্য বিনিময়ের মধ্যদিয়ে ‘থ্যাংকস গিভিং’ উৎসবের সূত্রপাত হয়। এর ধারাবাহিকতায় ১৮৬৩ সালে প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন সেদিনের সেই বন্ধুত্ব এবং শান্তির অমিয়বাণী মার্কিন নাগরিকদের অন্তরে ধারণ করতে রাষ্ট্রীয়ভাবে দিনটিকে ‘থ্যাংকসগিভিং হলি ডে’ হিসেবে ঘোষণা করেন। আরও পড়ুন: ক্ষয়িষ্ণু গণতন্ত্রের দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নাম ঘোষণা সেই থেকে প্রতিবছর বন্ধুত্ব ও সংহতি প্রকাশের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটকে স্মরণীয়-বরণীয় করে তুলতে নানা আয়োজনে মেতে উঠে সমগ্র যুক্তরাষ্ট্রবাসী। এ দিন সরকারি ছুটির দিন। একই আমেজে পার্শ্ববর্তী দেশ কানাডায় এ দিনটি পালন করা হয় প্রতিবছর অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় সোমবার। এ ছাড়াও জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, জাপান, ভারতের গোয়াসহ বিভিন্ন দেশে এই দিবসটি বেশ জাঁকজমকের সাথেই প্রতিবছর পালিত হচ্ছে। থ্যাংকসগিভিং ডের পরের দিন শুক্রবারকে ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ বলা হয়। এ দিনটি মার্কিনিদের কাছে বহু আকাঙ্ক্ষিত একটি দিন। এই দিনে প্রায় সব ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য অস্বাভাবিক ডিসকাউন্ট মূল্যে বিক্রি করে। যুক্তরাষ্ট্রে সারা বছর যে পরিমাণ বেচাকেনা হয়, তার প্রায় অর্ধেক পরিমাণ হয় শুধু এই একটি দিনেই। ফলে এই একদিনে অর্থনীতির সূচক এক লাফে অনেকখানি সামনে এগিয়ে যায়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply