Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » টি-টোয়েন্টিতে কে কয়বার চ্যাম্পিয়ন, এক নজরে দেখে নিন




টি-টোয়েন্টির নতুন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। ছবি : সংগৃহীত অবশেষে পর্দা নামল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই করে দুই প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডকে আট উইকেটে হারিয়ে শিরোপার উল্লাস করে অস্ট্রেলিয়া। তাই নতুন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পেল ক্রিকেট বিশ্ব। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের নতুন চ্যাম্পিয়ন হলো অস্ট্রেলিয়া। ওয়ানডে বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে এতদিন শিরোপা অধরা ছিল তাদের। ২০১০ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ফাইনাল খেলে রানার্সআপ হয়েছিল অসিরা। তবে এবার আর ভুল করল না তারা। শিরোপা নিয়েই বাড়ি ফিরে অ্যারন ফিঞ্চের দল। অন্যদিকে আরেকটি ফাইনাল থেকে হতাশা নিয়ে ফিরল নিউজিল্যান্ড। ২০১৫, ২০১৯ পর এবার ২০২১ সালেও হতাশা সঙ্গী হলো কিউইদের। টানা তিনটি ফাইনাল খেলা নিউজিল্যান্ড রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম চ্যাম্পিয়ন হলো অস্ট্রেলিয়া। এর আগের ছয় আসরে সর্বোচ্চ দুবার শিরোপা জিতেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সবমিলে সাত আসরের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা হলো—ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২) ও অস্ট্রেলিয়া। ১. ২০০৭ সালে প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ওই আসরের ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে শিরোপা জয় করে মাহেন্দ্র সিং ধোনির দল। ২. ২০০৯ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসর বসে ইংল্যান্ডে। ওই আসরের ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে আট উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। ৩. পরের বছর অনুষ্ঠিত হয় তৃতীয় আসর। সেটি বসে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ওই আসরের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে সাত উইকেটে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তোলে ইংল্যান্ড। ৪. ২০১২ সালে চতুর্থ আসর বসে শ্রীলঙ্কায়। ওই আসরের ফাইনালেও ওঠে লঙ্কানরা। কিন্তু জিততে পারেনি। ঘরের মাঠে হেরে যায় তারা। জয় নিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৫. ২০১৪ সালে পঞ্চম আসর হয় বাংলাদেশে। সেই আসরে অবশ্য শিরোপা হাতছাড়া করেনি লঙ্কানরা। আগের দুবার রানার্সআপ হওয়া শ্রীলঙ্কা ২০১৪ আসরে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা নিজেদের করে নেয়। ৬. সবশেষ আসর অনুষ্ঠিত হয় ২০১৬ সালে। সেবার স্বাগতিক ছিল ভারত। ওই আসরেও সবাইকে চমকে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ফাইনালে ইংল্যান্ডকে চার উইকেটে হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৭. এবারের বিশ্বকাপ বসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। টুর্নামেন্টের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে আট উইকেটে হারিয়ে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পায় অসিরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply