Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান




পাকিস্তান ও স্কটল্যান্ডের ম্যাচ। ছবি-সংগৃহীত লক্ষ্যটা বিশাল। জিততে হলে ১৯০ রান করতে হতো স্কটল্যান্ডকে। কিন্তু এই লক্ষ্যের ধারেকাছেও যেতে পারল না স্কটিশরা। ব্যাটে-বলের দাপটে স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। ৭২ রানের বড় জয়ে গ্রুপ-২ এর চ্যাম্পিয়ন হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলবে বাবর আজমের দল। টানা চার জয়ে সবার আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করে পাকিস্তান। এবার স্কটিশদের হারিয়ে নিজেদের গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় সেমিফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ হয়েছে গ্রুপ-১ এর রানার্সআপ দল অস্ট্রেলিয়া। আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় সেমিফাইনালে লড়বে পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে আরেক সেমিফাইনালে লড়বে গ্রুপ-১ এর চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ও গ্রুপ-২ এর রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড। তাদের লড়াই হবে ১০ নভেম্বর। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে আজ রোববার টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৮৯ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন বাবর আজম। ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন শোয়েব মালিক। শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে বেশ সতর্ক ছিল পাকিস্তান। প্রথম কয়েক ওভারে রানের গতি কম থাকলেও উইকেট ধরে রেখেছিলেন তারা। এরপর সেট হয়ে রানের গতি বাড়ান অধিনায়ক বাবর ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। কিন্তু ওপেনার রিজওয়ান বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি। সপ্তম ওভারে তাঁকে ফিরিয়ে দেন হামজা তাহির। ১৯ বলে ১৫ রান করে ফেরেন তিনি। দলীয় ৫৯ রানের মাথায় আরেকটি ধাক্কা খায় পাকিস্তান। হারায় ফখর জামানের উইকেট। ১৩ বলে ৮ রান। দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় পাকিস্তান। সেখান থেকে দলকে উদ্ধার করলেন বাবর আজম। সতীর্থদের আশা-যাওয়ার মাঝে ৬৬ রানের চমৎকার ইনিংস উপহার দেন তিনি। ৪৭ বলে তাঁর ইনিংসে ছিল পাঁচ বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কা। বাবরের সঙ্গে ১৯ বলে ৩১ রানের ইনিংস খেলেন মোহাম্মদ হাফিজ। দুজন ফিরলে শেষ দিকে দায়িত্ব নেন শোয়েব মালিক। আসিফ আলীকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানকে ১৮৯ রানের সংগ্রহ এনে দেন মালিক। ১৮ বলে ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন মালিক। আসিফ করেন শেষ দিকে ৪ বলে ৫ রান। জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে মাত্র ১১৭ রান করেছে স্কটল্যান্ড। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৭ বলে ৫৪ রান করেছেন রিচি ব্রাইটন। ৩১ বলে জর্জ মুনসি করেন ১৭ রান। বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে একটি ম্যাচেও জিততে পারেনি স্কটিশরা। টানা পাঁচ হার নিয়ে বাড়ি ফিরতে হতে স্কটল্যান্ডকে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply