Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ঠিক যেন এ যুগের শাহজাহান




স্ত্রী বা প্রেমিকার প্রতি নানাভাবে ভালোবাসা ব্যক্ত করার কথা শোনা যায়। ভালবাসা জাহির করতে স্ত্রী বা প্রেমিকাকে কখনও ফুল, কখনও চকোলেট, কখনও বা দামি পোশাক বা সুগন্ধি দিয়ে থাকেন স্বামী বা প্রেমিক। কিন্তু ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর প্রতি ভালবাসা জানাতে যা করলেন, তা অবাক করা কাণ্ড। মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুরের বাসিন্দা আনন্দ চোকসে। স্ত্রীর প্রতি তার ভালবাসার নিদর্শন হিসেবে উপহার দিলেন 'তাজমহল'। দোকান থেকে পৃথিবী-বিখ্যাত সৌধের কোনো প্রতিরূপ কিনে এনে দিয়েছেন, এমনটা ভাবলে ভুল হবে। হুবহু তাজমহলের মতো একটি বাড়ি তৈরি করেছেন আনন্দ এবং সেটি উপহার দিয়েছেন স্ত্রীকে। মুঘল সম্রাট শাহজাহান যেমন পত্নী মমতাজের প্রতি ভালোবাসা ব্যক্ত করতে তার স্মৃতিতে তাজমহল বানিয়েছিলেন, সেই পথকেই অনুসরণ করলেন আনন্দ। তবে স্ত্রীর স্মৃতিতে নয়, স্ত্রীর প্রতি ভালবাসার নিদর্শন হিসেবেই তাজমহলের এক ছোট সংস্করণ বানিয়েছেন তিনি। আরও পড়ুন: দেড় বছরে ভারতে করোনায় আক্রান্ত সর্বনিম্ন আনন্দ জানান, এই বুরহানপুরেই মৃত্যু হয়েছিল মমতাজের। কিন্তু এই শহরে তাজমহল না বানিয়ে আগরায় কেন সেই স্মৃতিসৌধ বানাতে গেলেন শাহজাহান, এই বিষয়টি তাকে খুব অবাক করতো। তাই তিনি ঠিক করেন, তাজমহলের প্রতিরূপ বানাবেন বুরহানপুরে। নিজের বাড়িকে তাজমহলের আদলে তৈরি করে তা স্ত্রীকে উপহার দিয়েছেন আনন্দ। বাড়িটি তৈরি করতে তিন বছর সময় লেগেছে। চারটি শয্যাকক্ষসহ বাড়িটিতে আধুনিক উপকরণের কোনো কমতি নেই। বাড়িটি তৈরি করতে ইনদওর এবং পশ্চিবঙ্গের দক্ষ শিল্পীদের সহায়তা নিয়েছেন আনন্দ। তবে বাড়িটি তৈরি করতে কত খরচ পড়েছে, তা খোলাসা করেননি তিনি। সূত্র: আনন্দবাজার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply