Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» »Unlabelled » আল্লাহ সাক্ষী, আমার কোনও দোষ ছিল না: মাহিয়া মাহি




আল্লাহ সাক্ষী, আমার কোনও দোষ ছিল না: মাহিয়া মাহি ‘সেদিনও ভীষণ বিব্রত ছিলাম। আজ দেশবাসীর কাছে আরও একবার ছোট হলাম, আল্লাহ সাক্ষী, আমার কোনও দোষ ছিল না।’—সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া অডিও ক্লিপ প্রসঙ্গে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে সৌদি আরব থেকে সামাজিক মাধ্যমে কথাগুলো বলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এর আগে ভাইরাল হওয়া এক অডিওতে শোনা যায়, অশ্লীল ভাষায় মাহিকে দেখা করার জন্য চাপ দিচ্ছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। সেখানে কথা বলতে শোনা যায় চিত্রনায়ক ইমনকেও। মূলত প্রতিমন্ত্রী ও ইমনের কথোপকথনটিই ভাইরাল হয়েছে। এতে মাহিয়া মাহিকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ কথা বলতে শোনা যায় ডা. মুরাদ হাসানকে। যে ঘটনার জেরে তাঁকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাঁর নিজ বাসভবনে ডা. মুরাদ হাসানের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। আর এরপরই পুরো বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন ঘটনার শিকার চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। জানা গেছে, তিনি এখন ওমরাহ্‌ পালনে স্বামীসহ সৌদি আরবের মক্কায় অবস্থান করছেন। সেখান থেকেই বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টায় নিজের ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় মাহি বলেন, ‌‘সেদিনও ভীষণ বিব্রত ছিলাম। নিজের আত্মসম্মানবোধে কতটুকু আসলে আঘাত লেগেছে, সেটা আমি জানি আর আমার সৃষ্টিকর্তা জানেন। আজ আরও একবার ছোট হলাম দেশবাসীর কাছে।’ দেশের মানুষের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা নিশ্চয়ই ভেবে দেখবেন- এই ভাষা বা ব্যবহারের প্রত্যুত্তর কী দেয়ার ছিল? আসলে আদৌ আমার বলার ভাষা ছিল না। আমার নিজের মতো করে যতটুকু পাশ কাটিয়ে যাওয়া উচিত, ততটুকু পাশ কাটিয়ে গেছে। ঠিক দুই বছর আগের একটা ঘটনা ছিল এটা। সৃষ্টিকর্তা সাক্ষী। বরাবরই আমি আল্লাহর কাছে বলি, আমি কষ্ট পেয়েছি। যার মাধ্যমে কষ্টটা পেয়েছি, আজ সেই রেজাল্টটা তিনি (ডা. মুরাদ হাসান) পেয়েছেন- এটা প্রমাণিত। আলহামদুলিল্লাহ।’ মাহি আরও বলেন, ‘আপনারা আমার হয়ে আমার জায়গা থেকে বিষয়টা চিন্তা করবেন যে, আসলে আমি দোষী নাকি দোষী না! আমি শুধু এটুকু বলবো, আল্লাহ সাক্ষী, আমার কোনও দোষ ছিল না। আমি শুধু একটা পরিস্থিতির শিকার ছিলাম।’ এর আগে অভিনেত্রী মাহিয়া মাহিকে ফোনের ওপার থেকে ধর্ষণের হুমকি দিতেও শোনা যায় তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের কণ্ঠে। গত বেশ কিছুদিন ধরেই খবরের শিরোনামে রয়েছেন প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। কখনও বিরোধী দলের নারী সদস্যের উদ্দেশে মজার ছলে প্রকাশ্যে অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে। আবার কখনও চলচ্চিত্র জগতের লোকদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে। এবার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির সঙ্গে হওয়া তাঁর একটি কথোপকথনের অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply