Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » চীন-লাওস ট্রেন চলাচল শুরু




অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হলো চীন-লাওস ট্রেন চলাচল। ট্রান্স-এশিয়ান রেলপথের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হিসেবে এই রেলপথ চীন, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়াসহ আসিয়ান দেশগুলোকে সংযুক্ত করবে। দু'দেশের সম্পর্কোন্নয়নের পাশাপাশি আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যেও এই রেলপথ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) বেইজিং সময় বিকেল ৪টা ৪৪ মিনিটে চীন ও লাওসের নেতারা ভিডিও কনভারান্সের মাধ্যমে চীন-লাওস দ্রুতগতির রেলপথ উদ্বোধন করেন। এদিন লাওসের প্রেসিডেন্ট সিসোলিথের সঙ্গে চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ভিডিও বৈঠক করেন। প্রেসিডেন্ট সি বলেন, লাওসের সঙ্গে স্থল যোগাযোগ স্থাপনের স্বপ্ন পূরণ হলো। চীন-লাওস রেল প্রকল্প হলো ‘এক অঞ্চল, এক পথ’ উদ্যোগের আওতায় লাওসের জনণগের জন্য চীনের একটি উপহারা। এর আগে লাওসে মাত্র ৩.৫ কিলোমিটার রেলপথ থাইল্যান্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিল। এই রেলপথ নির্মাণে অংশগ্রহণ করেছে স্থানীয় ৫ হাজার মানুষ। পাঁচ বছর কাজের পর ১ হাজার ৩৫ কিলোমিটার দীর্ঘ চীন-লাওস রেলপথ চালু হলো। লাওসের রাজধানী থেকে চীন-লাওসের সীমান্ত পর্যন্ত যেতে দুই দিনের দূরত্ব কমে হয়েছে ৩ ঘণ্টা। আরও পড়ুন: আফগানিস্তানে জোরপূর্বক বিয়ে নিষিদ্ধ এ রেলপথ স্থানীয় মানুষের জীবনযাপন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের বেশ সহায়ক হবে। লাওসের প্রেসিডেন্ট ২ ডিসেম্বর জাতীয় দিবসের অভিনন্দন বার্তায় বলেছিলেন, এই রেলপথ লাওসকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে সাহায্য করবে। মানুষের যাতায়াতের পাশাপাশি পর্যটন, কৃষি, জলবিদ্যুতসহ নানা সম্পদ উন্নয়ন ও শহর নির্মাণ এগিয়ে নিয়ে যাবে এই প্রকল্প। ট্রান্স-এশিয়ান রেলপথের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হিসেবে চীন-লাওস রেলপথ চীন, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়াসহ আসিয়ান দেশকে সংযুক্ত করবে। এই রেলপথ চালু হওয়ায় লাওসের রাজধানী থেকে চীনের খুনমিং পর্যন্ত লজিস্টিক্সের পরিবহন ব্যয় ৪০-৫০ শতাংশ কমবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply