Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর মদ পার্টির তদন্ত করবে পুলিশ




লকডাউনের মধ্যে মদের পার্টি আয়োজনের অভিযোগে তোপের মুখে থাকা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারি কর্মকর্তাদের জড়িত থাকার বিষয়ে তদন্ত শুরুর ঘোষণা দিয়েছে লন্ডন পুলিশ। পুলিশের এ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এর মধ্য দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এদিকে লকডাউনে পার্টি করায় প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবির পাশাপাশি গণমাধ্যমেরও তীব্র সমালোচনার মুখে বরিস জনসন। ব্রিটেনের প্রায় সব পত্রিকার পাতাজুড়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের নাম। কোনো কৃতিত্বের জন্য নয়। বরং লকডাউনে পার্টি করায় সমালোচনায় সরব হয়েছে গণমাধ্যমগুলো। করোনায় বিপর্যস্ত যুক্তরাজ্যে যখন লকডাউন চলছে তখন জন্মদিনের এক অনুষ্ঠানে অংশ নেন বরিস জনসন। ব্রিটিশ নাগরিকদের ঘরবন্দি থাকার নির্দেশ দিয়ে সরকারের প্রধান হয়ে তা অমান্য করায় মঙ্গলবার ব্রিটেনের অধিকাংশ পত্রিকায় বরিসের তীব্র সমালোচনা করেছে। প্রধানমন্ত্রীর লকডাউন অমান্য করার অভিযোগ পুলিশ পর্যন্ত গড়িয়েছে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টে যখন বরিসের পদত্যাগের দাবি জোরালো হচ্ছে তখন অভিযোগ তদন্ত শুরুর ঘোষণা দিয়েছে লন্ডন পুলিশ। সংবাদ সম্মেলনে লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ক্রেসিডা ডিক জানান, কোভিড বিধিনিষেধ ভঙ্গ করে ডাউনিং স্ট্রিটে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠান আয়োজনের সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেয়েছেন তারা। লন্ডনের পুলিশ কমিশনার ক্রেসিডা ডিক বলেন, মন্ত্রিসভার সঙ্গে আমাদের কাজ করার অভিজ্ঞতা বেশ পুরনো। আমাদের তদন্ত করার সক্ষমতা রয়েছে। মন্ত্রিসভা অফিসের তদন্ত কমিটি থেকে আমাদেকে সুনির্দিষ্ট কিছু তথ্য দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আমাদের নিজেদেরও পর্যবেক্ষণ রয়েছে। ডাউনিং স্ট্রিটে সাম্প্রতিক সময়ে কোভিডবিধি ভেঙে যে অনুষ্ঠানগুলো আয়োজন করা হয়েছে আমরা সেগুলোর তদন্ত করছি। মদের পার্টিতে সরকারি কর্মকর্তারা জড়িত ছিলেন কি না এ নিয়ে পুলিশি তদন্তের ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। মঙ্গলবারও পার্লামেন্ট অধিবেশনে তোপের মুখে পড়েন তিনি। আবারও বরিস দাবি করেন, তিনি কোনো বিধিনিষেধ ভঙ্গ করেননি। আরও পড়ুন: ওমিক্রনের নতুন আরও দুই লক্ষণ শনাক্ত বরিস জনসন বলেন, কয়েক সপ্তাহ আগে ডাউনিং স্ট্রিট, মন্ত্রিসভা অফিস ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থানে কোভিড বিধি ভঙ্গের অভিযোগের স্বাধীন তদন্তের জন্য আমি ব্যবস্থা করেছি। এই প্রক্রিয়ায় সব কিছু মেট্রোপলিটন পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করা হয়েছে। তাই মেট্রোপলিটন পুলিশের নিজস্ব তদন্তকেও আমি স্বাগত জানাই। এর মধ্য দিয়ে আমি আমার অবস্থান সাধারণ মানুষের কাছে পরিষ্কার করতে পারব বলে বিশ্বাস করি। ডাউনিং স্ট্রিটের পক্ষ থেকে জন্মদিনে বরিস জনসনের অংশগ্রহণ নিয়ে অস্বীকার করা না হলেও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দাবি, বরিস জনসন ওই অনুষ্ঠানে দশ মিনিটেরও কম সময় উপস্থিত ছিলেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply