Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » রাশিয়ার সঙ্গে ই.উ.’র আলোচনার জন্য ম্যাক্রঁর আহ্বানে ইউরোপীয় মিত্ররা হতবাক




ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রঁর এই আহ্বান যে ইউরোপীয় ইউনিয়ন তার নিজের মতো করে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাক, ইউক্রেনে রাশিয়ার দখল-অভিযানের হুমকি পশ্চিমের প্রতিক্রিয়ায় ভাঙ্গন ধরাতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের উপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে ইউরোপকে আঞ্চলিক নিরাপত্তার বিষয়টি নিজেদের হাতে নেয়ার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে ই.ইউ সহযোগীদের বোঝাতে অতীতে ম্যাক্রঁকে হিমসিম খেতে হয়েছে। তবে ইউরোপীয় বিধায়কদের উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে তিনি যে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে তার নিজস্ব নিরাপত্তা ম্থিতিশীলতা সম্পর্কে চুক্তির বিষয়ে ক্রেমলিনের সঙ্গে রফা করতে বলেছেন তাকে রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ মাধ্যম স্বাগত জানিয়েছে। তবে কোন কোন মধ্য-ইউরোপীয় ও বল্টিক অঞ্চলের নেতারা বলেছেন ম্যাক্রঁর এই মন্তব্যগুলো ঠিক সময় করা হয়নি এবং এতে এ রকম ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে যে ক্রেমিলন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নকে পরস্পরের বিরুদ্ধে কাজে লাগাবে এবং যুক্তরাষ্ট্র যখন পশ্চিমি ঐক্যের কথা বলছে ঠিক তখন ক্রেমলিন বিভাজন তৈরি করার চেষ্টা করছে। সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী কার্ল বিল্ট বলেছেন তিনি বুঝতে পারছেন না ম্যাক্রঁ. “নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার একটি নতুন ব্যবস্থা” বলতে ঠিক কি বোঝাতে চেয়েছেন। তিনি এক টু্‌ইট বার্তায় বলেন, “ এই আগামি কয়েক মাস বরঞ্চ বর্তমানে চলমান ১৯৮৯-উত্তর ব্যবস্থার প্রতি জোরালো সমর্থনের কথাই বলবে”। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বলেছেন রাশিয়া “খুব সংক্ষিপ্ত সময়ের নোটিশে হামলা চালাতে পারে”। ইউক্রেনের গোয়েন্দা বিভাগের মূল্য়ায়ন অনুযায়ী রাশিয়া এরই মধ্যে ইউক্রেনের সীমান্ত বরাবর ১,২৭,০০০ সৈন্য মোতায়েন করেছে। ইউরোপীয় সংসদে দেওয়া তাঁর ভাষণে ম্যাক্রঁ বলেন , “ যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের মধ্যে সমন্বয় রক্ষা করা ভাল তবে রাশিয়ার সঙ্গে ইউরোপের নিজের সংলাপ থাকাটাও অত্যন্ত জরুরি । তিনি বলেন ইউরোপীয়দের একটি নতুন পরিকাঠামো তৈরি করা উচিত্ যা তারা, “ আমাদের সঙ্গে, ইউরোপীয়দের সঙ্গে, নেটোতে আমাদের মিত্রদের সঙ্গে ভাগ করে নেবে এবং রাশিয়ার সঙ্গে আপোষ আলোচনার জন্য সে সম্পর্কে প্রস্তাব করতে পারে”। তা ছাড়া ম্যাক্রঁ জোর দিয়েই বলেন সীমান্তগুলো অলংঘনীয় হওয়া উচিত্ এবং নেটোতে যোগ দিতে ইউক্রেন কিংবা অন্য যে কোন দেশের বিরুদ্ধে রাশিয়াকে ভেটো দিতে দেওয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচিত্ হবে না। ইউরোপীয় ইউনিয়নের কর্মকর্তারা বলছেন যে যুক্তরাষ্ট্র থেকে পৃথক ভাবে ক্রেমলিনের সঙ্গে ইউরোপীয়দের নিজেদের সংলাপ পরিচালনার ব্যাপারে ম্যাক্রঁর এই আহ্বান তাদের হতবাক করেছে। পশ্চিমি কুটনীতিকরা বলছেন ফ্রান্সের এই নেতা তাঁর ভাষণের আগে অন্যান্য জাতীয় নেতাদের সঙ্গে কোন সলাপরামর্শ করেননি। তবে বৃহস্পতিবারই ইউরোপীয় কর্মকর্তারা ওয়াশিংটনকে পুণরায় নিশ্চিত করেছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply