Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেন ইস্যুতে বিশ্ব রাজনৈতিক অঙ্গনে উত্তাপ




ইউক্রেনে রুশ সেনাদের অভিযানের পর থেকে উত্তাপ ছড়াচ্ছে বিশ্ব রাজনৈতিক অঙ্গনেও। রুশ আগ্রাসনের প্রতি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পথে যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ পশ্চিমা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে যুক্ত হয়ে সংঘাত বন্ধের পাশাপাশি নমনীয় আচরণের আহ্বান জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রাশিয়াকে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘও। ইউক্রেন ইস্যুতে সরগরম বিশ্বরাজনীতি। পুতিনের নির্দেশে ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকেই নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করতে ব্যস্ত বিশ্বনেতারা। ইউক্রেনে রুশ হামলায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাপক পরিসরে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ পশ্চিমা দেশগুলো। বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেন ইস্যুতে জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জানান, শিগগিরই যুক্তরাজ্য বড় পরিসরে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। এ ছাড়া রাশিয়ার ওপর জ্বালানি নির্ভরতা কমানোর বিষয়টির ওপর জোর দিয়েছেন বরিস জনসন। রাশিয়ার বিপজ্জনক সামরিক হামলার ফলে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইউক্রেনের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লামিদির পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে যুক্ত হন। এ সময় ইউক্রেনে সংঘাত বন্ধ করতে পুতিনকে আহ্বান জানান মোদি। অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের এবং কূটনৈতিক আলোচনা ও সংলাপের পথে ফিরে আসার জন্য সব পক্ষের সমন্বিত প্রচেষ্টার আহ্বান জানান তিনি। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানও ইউক্রেনে আক্রমণের বিষয়টিকে অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন। এদিকে উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়া সফরে যান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরান খানের এ সফর নিয়ে ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র। তবে সফরে দ্বিপাক্ষিকসহ গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তান। আরও পড়ুন: রুশ হামলার ভয়াবহ ভিডিও প্রকাশ (ভিডিও) অন্যদিকে ইউক্রেনকে রক্ষায় ব্যস্ত পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটো পূর্ব ইউরোপের দেশে আবারো যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে। রাশিয়ার আক্রমণের মধ্যেই পূর্ব ইউরোপে স্থল এবং বিমান বাহিনী বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে ন্যাটো। এ ছাড়া রাশিয়াকে সহযোগিতা না করতে বেলারুশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মাইকেল। তবে পরিস্থিতি মোকাবিলায় এখনই রাশিয়াকে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। এতোসব হুমকি-ধামকির তোয়াক্কা না করেই ইউক্রেন অভিযানে মরিয়া রুশ সেনারা। এর আগে, গত সোমবার ইউক্রেনে রুশ সমর্থনপুষ্ট বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রিত দুটি অঞ্চলকে স্বাধীন হিসেবে ঘোষণা দেন পুতিন। পাশাপাশি টানা ইউক্রেন সীমান্তে সেনা মোতায়েন রাখে মস্কো। দেশটিতে হামলা চালাতেই রাশিয়ার এ তৎপরতা দাবি করলেও পুতিন সরকার বরাবরই নিজেদের আত্মরক্ষার্থে এমন মহড়ার দাবি কোরে আসছিল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply