Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » শাবিপ্রবি উপাচার্যের পদত্যাগ বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত হলো




শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) সংকট নিরসনে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আজ বিকেল ৩টায় বৈঠকে বসেন তারা। প্রায় ৩ ঘণ্টার আলোচনা শেষে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের অধিকাংশ দাবিই যৌক্তিক। তিনি বলেন, উপাচার্যকে অপসারণে তাদের একটি দাবি ছিল। সে ব্যাপারে আমরা আগেও তাদের সঙ্গে কথা বলেছি, আজকেও বলেছি। উপাচার্যকে অপসারণের দাবির কথা তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে পৌঁছে দেবেন বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, আচার্যই একজন উপাচার্যকে নিয়োগ দেন কিংবা অপসারণ করেন, অতএব আমরা আচার্যকে অবহিত করব। বাকি সিদ্ধান্ত মহামান্য আচার্য গ্রহণ করবেন। শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, তারা তাদের যে বক্তব্য, তাদের যে চাওয়াগুলো এবং কেন তারা সেটি চায়, সেই বক্তব্য আমাদের কাছে তুলে ধরেছে। আমরা অত্যন্ত মনোযোগের সঙ্গে তাদের সেই বক্তব্যগুলো শুনেছি। আমরা তাদের বক্তব্য মহামান্য আচার্যকে অবহিত করবো। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়টিতে চলমান অচলাবস্থা নিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। উপাচার্যের পদত্যাগ ছাড়াও শিক্ষার্থীদের অন্যান্য দাবিগুলো হলো, অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হককে শাবিপ্রবিতে এমিরেটাস অধ্যাপক করা, দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণাখাতে প্রয়োজনীয় বাজেট বাড়ানো এবং সঠিক ব্যয় নিশ্চিতকরণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা পদ্ধতিতে কোডিং সিস্টেম চালু করা এবং শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ন্যূনতম পিএইচডিসহ ডেমো ক্লাসের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মতামত যাচাই করা। সকালে সিলেটে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, শাবিপ্রবির সংকট নিরসনে সব ধরনের চেষ্টা করছে সরকার। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, প্রশাসক, বিশিষ্ট নাগরিকদের সাথে নিয়ে বসে চলমান সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করার কথাও বলেছেন তিনি। এর আগে শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষার্থীদের আলোচনার আগের দিনই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আলমগীর কবিরকে অব্যাহতি দিয়ে শাবিপ্রবিতে নতুন প্রক্টর নিয়োগ দেয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, ভিসির পদত্যাগের একদফা দাবিতে সপ্তাহখানেকের বেশি সময় বেশ উত্তাল ছিল শাবিপ্রবি ক্যাম্পাস। আমরণ অনশনে যোগ দেয় কয়েকজন শিক্ষার্থী। শাবিপ্রবির সাবেক শিক্ষক ও লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবালের অনুরোধে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা ২৬ জানুয়ারি অনশন ভাঙেন। এর পরদিন সন্ধ্যায় শাবিপ্রবির এই আন্দোলনের প্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি ওই সময় শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন হবে জানিয়ে আন্দোলন কর্মসূচি বন্ধ করার আহ্বান জানান। এরপরই ওইদিন রাতে ভিসির বাসভবন ও প্রধান ফটকসহ সব ধরনের অবরোধ প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। তবে উপাচার্যের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে অহিংস আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছিলেন আন্দোলনকারীরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply