Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » এইচএসসিতে ৯৫.২৬ শতাংশ পাস, জিপিএ-৫ পেল ১ লাখ ৮৯ হাজার শিক্ষার্থী




এইচএসসিতে ৯৫.২৬ শতাংশ পাস, জিপিএ-৫ পেল ১ লাখ ৮৯ হাজার শিক্ষার্থী রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে আজ রোববার। রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আজ রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত হন।

এবারের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় সর্বমোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৪ লাখ তিন হাজার ২৪৪ জন। তাদের মধ্যে ১৩ লাখ ৭১ হাজার ৬৮১ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। আর, উত্তীর্ণ হয়েছে ১৩ লাখ ছয় হাজার ৭১৮ জন। পাসের হার ৯৫ দশমিক ২৬ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৮৯ হাজার ১৬৯ পরীক্ষার্থী। বোর্ড অনুযায়ী পাসের হার- ঢাকা ৯৬ দশমিক ২০ শতাংশ, বরিশাল ৯৫ দশমিক ৭৬, রাজশাহী ৯৭ দশমিক ২৯, চট্টগ্রাম ৮৯ দশমিক ৩৯, কুমিল্লা ৯৭ দশমিক ৪৯, ময়মনসিংহ ৯৫ দশমিক ৭১, যশোর ৯৮ দশমিক ১১, সিলেট ৯৪ দশমিক ৮০, দিনাজপুর ৯২ দশমিক ৪৩, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড ৯৫ দশমিক ৪৯ এবং কারিগরিতে ৯২ দশমিক ৮৫ শতাংশ। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে গত ২ ডিসেম্বর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সারা দেশের বিভিন্ন কেন্দ্রে একযোগে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২০ সালের পরীক্ষা হয়নি। ওই বছর শিক্ষার্থীদের অটোপাস দেওয়া হয়েছিল। গতবার সর্বোচ্চসংখ্যক শিক্ষার্থীকে জিপিএ-৫ দেওয়া হয়েছিল। জিপিএ পেয়েছিলেন এক লাখ ৬১ হাজার ৮০৭ জন। পরীক্ষা না নিয়ে ফল প্রকাশে আইন সংশোধনের পর একযোগে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের ফল প্রকাশিত হয়। এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত (কাস্টমাইজড) সিলেবাসে নেওয়া হয়। ১০০-এর পরিবর্তে বিষয়ভিত্তিক ৫০ নম্বরের অনুষ্ঠিত হয় পরীক্ষা। ফলাফল অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ‘কারিগরি শিক্ষার বিষয়ে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন করা জরুরি। যেসব দেশ উন্নত হয়েছে, তারা সবাই কারিগরি শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েই উন্নত হয়েছে। উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে অবশ্যই গবেষণায় জোর দিতে হবে।’ ফলাফল ঘোষণা অনুষ্ঠানে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘২০২১ সালের উচ্চমাধ্যমিকের ১৪ লাখ তিন হাজার ২৪৪ জন শিক্ষার্থীকে অভিনন্দন জানাই। আজ যারা উত্তীর্ণ হয়েছে, তারা উচ্চশিক্ষায় প্রবেশ করবে। আমরা উচ্চশিক্ষাকে কর্মসংস্থানমুখী করেছি। আমরা কারিগরি শিক্ষার প্রতি জোর দিয়েছি৷ আর, এসব করা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায়।’ যেভাবে জানা যাবে ফলাফল শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে,এবারও ঘরে বসেই মোবাইল ফোনে ও ওয়েবসাইট থেকে ফলাফল জানা যাবে। শিক্ষা বোর্ড থেকে ফল প্রকাশ হওয়ার পর তা এসএমএসের মাধ্যমে জানা যাবে। প্রতি এসএমএসের জন্য ২ টাকা ৬৭ পয়সা খরচ হবে। এসএমএসে সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের ফল পেতে HSC<>বোর্ড<>রোল<>সাল লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠিয়ে দিতে হবে। উদাহরণ : HSC DHA 123456 2022 টাইপ করে এসএমএস পাঠিয়ে দিন ১৬২২২ নম্বরে। এসএমএস পাঠালেই ফল পাওয়া যাবে। মাদ্রাসা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের জন্য HSC<>MAD<>রোল<>সাল লিখে পাঠিয়ে হবে ১৬২২২ নম্বরে। টেকনিক্যাল শিক্ষা বোর্ডের জন্য HSC<>TEC<>রোল<> সাল লিখে পাঠিয়ে দিতে ১৬২২২ নম্বরে। আর অনলাইনে ফল পাওয়া যাবে http://www.educationboardresults.gov.bd/ ওয়েবসাইটে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় সর্বমোট ১৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৩০ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসিতে অংশ নেয় ১১ লাখ ৩৮ হাজার ১৭ জন। যাদের মধ্যে পাঁচ লাখ ৬৩ হাজার ১১৩ জন ছাত্র এবং পাঁচ লাখ ৭৪ হাজার ৯০৪ জন ছাত্রী। মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে আলিম পরীক্ষায় অংশ নেয় এক লাখ ১৩ হাজার ১৪৪ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৬১ হাজার ৭৩৮ এবং ছাত্রী ৫১ হাজার ৪০৬ জন। এ ছাড়া এইচএসসি (বিএম/ভোকেশনাল) পরীক্ষা দিয়েছে এক লাখ ৪৮ হাজার ৪৬৯ জন। এতে ছাত্র এক লাখ ৪ হাজার ৮২৭ জন এবং ছাত্রী ৪৩ হাজার ৬৪২ জন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply