Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেনে রাশিয়ার পরবর্তী ‘যৌক্তিক’ লক্ষ্যবস্তু হতে পারে বন্দরনগরী ওডেসা




যুক্তরাজ্যের জয়েন্ট ফোর্সেসের সাবেক কমান্ডার জেনারেল স্যার রিচার্ড ব্যারনস সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার পরবর্তী ‘লক্ষ্যবস্তু’ হতে পারে বন্দরনগরী ওডেসা। ইউক্রেনের মারিওপোলে তীব্র লড়াইয়ের মধ্যে বিবিসি রেডিও ৪-এর সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি এ কথা বলেন। খবর বিবিসির। এ সময় রিচার্ড ব্যারনস সামনের দিনগুলোতে ইউক্রেনে রাশিয়ার কৌশল কেমন হতে পারে তা নিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, আমরা দেখতে যাচ্ছি, বৃহত্তর পরিসরে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর ওপর রাশিয়া ব্যাপক আকারে সামরিক শক্তি ব্যবহার করবে। তারা ইউক্রেনের সরবরাহ ব্যবস্থা, লজিস্টিক এবং বিমানঘাঁটিতে হামলা চালাবে। ‘এর পর তারা যেসব শহর বা এলাকা প্রয়োজন বলে মনে করবে তা দখলে নিতে চাইবে’, যোগ করেন তিনি। রিচার্ড ব্যারনস বলেন, এ ধারণার পরিপ্রেক্ষিতে বলা যায়, ইউক্রেনের দক্ষিণে বন্দরনগরী ওডেসা হতে যাচ্ছে রাশিয়ার পরবর্তী লক্ষ্যবস্তু। তিনি বলেন, বন্দরনগরী ওডেসা যদি রাশিয়া দখলে নিতে পারে তবে তা ইউক্রেনের অর্থনীতিকে কৃষ্ণসাগর থেকে বিচ্ছিন্ন করবে। অপরদিকে একই সময় রাশিয়া কিয়েভেও চাপ অব্যাহত রাখবে, যা দেশটির রাজনৈতিক কেন্দ্র। এদিন রিচার্ড ব্যারনস মারিওপোলের অবস্থা নিয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, মারিওপোল দখলে নিতে পারলে তা হবে রাশিয়ার জন্য বড় ধরনের কৌশলগত সাফল্য। এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, এর মাধ্যমে রাশিয়া ক্রিমিয়ার সঙ্গে স্থলে সরাসরি যোগাযোগ তৈরি করতে পারবে। ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের দোনবাস অঞ্চলে সামরিক অভিযানের নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকেই মারিওপোলে ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। তবে প্রতিরোধ অব্যাহত রেখেছে ইউক্রেনীয়রা। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, রাশিয়া হামলা চালানোর পর থেকে ইউক্রেনের ৯০২ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন এক হাজার ৪৫৯ জন। যদিও সংখ্যাটি আরও বেশি হতে পারে। এ পর্যন্ত ৩৩ লাখ মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন। আর ৬৫ লাখ মানুষ অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply