Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » সাকিবকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিশ্রাম দিয়েছে বিসিবি




তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। ছবি : সংগৃহীত ব্যাপক আলোচনার পর শেষ পর্যন্ত সাকিব আল হাসানকে নিয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারকে। শুধু তাই নয়, সাকিব দুবাই থেকে ফিরলে তাঁর কাছ থেকে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানতে চাইবে বিসিবি। আজ বিকেলে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস সংবাদ সম্মেলনে খবরটি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে জালাল ইউনুস বলেন, ‘সাকিবকে আজ (মঙ্গলবার) ফোন করার পর সে জানায়, আমি এখনো মনে করি, আমি ক্রিকেট খেলার জন্য মানসিক এবং শারীরিকভাবে আনফিট, সেজন্য দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজটা স্কিপ করতে চাই। এরপর আমরা বোর্ড সভাপতির সঙ্গে বসে সাকিবের আগ্রহের কথা চিন্তা করে তাকে আগামী ৩০ শে এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত আমরা তাকে জানিয়েছি।’ এদিকে গত রোববার দুবাইয়ের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সাকিব বলেছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে খেলতে চান না তিনি। সাকিব আল হাসান বলেন, ‘সদ্যসমাপ্ত আফগানিস্তান সিরিজ আমার কাছে হতাশাজনক। আমার যে চাওয়া ছিল, সে অনুযায়ী ভালো পারফর্ম করতে পারিনি। আর দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ নিয়ে বলতে হয়, আমি মানসিক এবং শারীরিক যে অবস্থানে আছি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলাটা খুব একটা সম্ভব নয়। যদি একটা বিরতি পাই, আগ্রহটা ফিরে পাই, তাহলে আমার জন্য খেলাটা সহজ হবে। আমার জন্য ভালো হয়।’ বাংলাদেশি তারকা আরো বলেন, ‘আমি আফগানিস্তান সিরিজ এনজয় করতে পারিনি। আমি চেষ্টা করেছি, কিন্তু হয়নি। আমার কাছে মনে হয়েছে, সিরিজে আমি শুধুই ‘প্যাসেঞ্জার’ ছিলাম। এই অবস্থায় আমি একদমই থাকতে চাই না। এই অবস্থায় দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ খেলাটা ঠিক হবে না আমার জন্য।’ এরই মধ্যে বিসিবিকে নিজের ভাবনার কথা জানিয়েছেন সাকিব। বোর্ড থেকে তাঁকে আরো দু’একদিন ভাবতে বলেছে। এ ব্যাপারে তারকা এই অলরাউন্ডার বলেন, ‘এমন মানসিকতা নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে খেলাটা ঠিক হবে না। আমি জালাল ভাইয়ের (বিসিবি পরিচালক) সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি বলেছেন দুদিন চিন্তা করবেন। আমাকেও সময় দিয়েছেন। এরপর একটা সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত হবে বলে মনে করি।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply