Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেনকে গবেষণাগারের বিপজ্জনক অনুজীব ধ্বংসের পরামর্শ ডব্লিউএইচও’র




ইউক্রেনকে গবেষণাগারের বিপজ্জনক অনুজীব ধ্বংসের পরামর্শ ডব্লিউএইচও’র

ইউক্রেনের গবেষণাগারের বিপজ্জনক অনুজীব ধ্বংসের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ইউক্রেনের গবেষণাগারে থাকা যেসব বিপজ্জনক অনুজীব মানুষের ক্ষতির কারণ হতে পারে সেগুলোকে ধ্বংস করতে দেশটিকে পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটির এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে। অন্যান্য দেশের মতো ইউক্রেনেও জনস্বাস্থ্য পরীক্ষাগার রয়েছে। এসব পরীক্ষাগারে করোনাভাইরাসসহ মানুষ এবং অন্যান্য প্রাণীদের বিপজ্জনক রোগ নিয়ে গবেষণা করা হয়। এর আগে এসব গবেষণাগার যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও ডব্লিউএইচও’র কাছ থেকে সহায়তা পেয়েছিল বলে জানিয়েছে বিবিসি। বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতিতে এসব গবেষণাগারকে কেন্দ্র করে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র পরস্পরকে দোষারোপ করছে। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, রাশিয়া ইউক্রেনে জৈবিক ও রাসায়নিক অস্ত্রের হামলা চালাতে পারে। অন্যদিকে রাশিয়া বলছে—ইউক্রেনে জীবাণু অস্ত্র কর্মসূচি পরিচালনার জন্য উন্নয়ন গবেষণায় যুক্তরাষ্ট্র অর্থায়ন করছে। এদিকে, রাশিয়ার বিরুদ্ধে ‘পরমাণু সন্ত্রাসবাদের’ অভিযোগ তুলেছে ইউক্রেন। রুশ বাহিনী ইউক্রেনের একটি পারমাণবিক গবেষণা স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে বলে দেশটির অভিযোগ। খবর বিবিসির। ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় পরমাণু বিষয়ক কর্তৃপক্ষ বলছে—দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভ শহরে অবস্থিত পারমাণবিক গবেষণা স্থাপনায় রুশ হামলা হয়েছে। এর জেরে সেখানকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এবং স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রুশ বোমার হামলায় স্থাপনাটির বাইরের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষের দাবি। তবে, হামলায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। আর, রাশিয়ার পক্ষ থেকে এ হামলার বিষয়ে কোনো বক্তব্য মেলেনি। এর আগে গত ৩ মার্চ রুশ বাহিনীর গোলার আঘাতে ইউক্রেনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন লেগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ওই বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি রুশ বাহিনী দখলেও নিয়েছিল। এরও আগে ইউক্রেনের চেরনোবিল পারমাণবিক ক্ষেত্র দখলে নেয় রুশ বাহিনী। জাতিসংঘের পরমাণু বিষয়ক নজরদারি সংস্থা আইএইএ গতকাল বৃহস্পতিবার বলেছে, ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ তাদের জানিয়েছে—চেরনোবিলের তেজষ্ক্রিয় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রের সঙ্গে ইউক্রেন কর্তৃপক্ষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। চেরনোবিল ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত। সেখানে ১৯৮৬ সালে বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াল পারমাণবিক দুর্ঘটনা ঘটেছিল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply