Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মারাত্মক তেজষ্ক্রিয়তার কবলে চেরনোবিল




রুশ বাহিনীর সামরিক অভিযানের কারণে চেরনোবিল পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে আবারও তেজষ্ক্রিয়তা ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। তারা আরও বলেছে, রুশ সেনারা প্ল্যান্টটির মাটিতে বিশাল আকৃতির গর্ত করে ক্ষতিগ্রস্ত এ পারমাণবিক কেন্দ্র থেকে বিকিরণ ধারণ করার জন্য অবকাঠামো বানানোর চেষ্টা করছিলেন। তাদের দাবি, রাশিয়ার ব্যবহৃত ট্যাংকগুলোও কেন্দ্রটির খুব কাছাকাছি ছিল এবং এখান থেকেই তারা নানা ধরনের অস্ত্রের ব্যবহার করেছে যার কারণে সামনের দিনগুলোতে ওই জায়গাটি থেকে আরও তেজষ্ক্রিয়তা ছড়াতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রুশ সেনারা বিশ্বের অন্যতম তেজষ্ক্রিয়তার জায়গায় নিজেদের কবর খুঁড়ে রেখে গেছে। সেখানে কর্মরত শ্রমিকসহ স্থানীয় বাসিন্দাদের মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। চেরনোবিল পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিরাপত্তা প্রকৌশলী ভ্যালেরি সেমেনভ বলেন, আমাদের পারমাণবিক কেন্দ্র দুটি দখল করা কোনো অংশেই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের কম ছিল না। এ জায়গার আশপাশ দিয়ে চলাচল করা গাড়িগুলো অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। আরও পড়ুন: ইউক্রেনের পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলের অবস্থা ভয়াবহ: জেলেনস্কি ভ্যালেরি সেমেনভ আরও বলেন, শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য আমরা অনেক লম্বা সময় ধরে কথা বলেছি। চেরনোবিলের নিরাপত্তার জন্য তাদের ভাবতে হবে। কোনো অবস্থাতেই যাতে তেজষ্ক্রিয়তা শ্রমিকদের ক্ষতিগ্রস্ত করতে না পারে সেদিকে আমরা সজাগ দৃষ্টি রাখছি। গেল ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে অভিযান শুরুর একদিনের মাথায় রুশ বাহিনী চেরনোবিল বিদ্যুৎকেন্দ্র দখল করে নেয়। যদিও ১৯৮৬ সালের দুর্ঘটনার পর থেকেই এখানে বিদ্যুৎ উদপাদন বন্ধ রয়েছে। সেই সময়ে প্ল্যান্টে ছড়িয়ে পড়া তেজষ্ক্রিয়তার কারণে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply