Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ৪ মিনিটে ব্রিটেন, ১০ সেকেন্ডে ফিনল্যান্ডকে উড়িয়ে দিতে পারবে রাশিয়া




৪ মিনিটে ব্রিটেন, ১০ সেকেন্ডে ফিনল্যান্ডকে উড়িয়ে দিতে পারবে রাশিয়া ২০১৮ সালে শয়তান-২ বা আরএস-২৮ সারমাট ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছিল রাশিয়া। পরমাণু অস্ত্রবাহী এই ক্ষেপণাস্ত্র একসঙ্গে ১২টি পরমাণু ওয়ারহেড বহন করতে সক্ষম। একটি মাত্র ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই নিশ্চিহ্ন হতে পারে পুরো একটি দেশ। এবার ব্রিটেন ও ফিনল্যান্ডকে সেই অস্ত্রের হুমকি দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠজন ডুমা (রুশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ) প্রতিরক্ষা কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান আলেক্সি জুরাভলিভ। শনিবার (১৪ মে) গর্বের সঙ্গে তিনি বলেন, এ অস্ত্রের আঘাতে ২০০ সেকেন্ড অর্থাৎ ৪ মিনিটে ব্রিটেন, আর মাত্র ১০ সেকেন্ডে উড়ে যাবে ফিনল্যান্ড। খবর দ্য গার্ডিয়ান-এর।

ডেপুটি চেয়ারম্যান আলেক্সি জুরাভলিভ দাবি করেন, ফিনল্যান্ডকে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন ন্যাটোয় যোগ দিতে উসকানি দিচ্ছে। ইউরা নিউজ আউটলেটকে তিনি বলেন, ‘ফিনল্যান্ড যদি নর্থ আটলান্টিক ব্লকে যোগ দিতে চায়, তাহলে আমাদের লক্ষ্য একেবারেই বৈধ। রাষ্ট্রটির অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলা পুরোপুরি যৌক্তিক।’ তিনি আরও বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যদি আমাদের রাষ্ট্রকে হুমকি দেয়, তবে আমাদের কাছে শয়তান-২ ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে এবং তারা যদি মনে করে রাশিয়ার অস্তিত্ব থাকা উচিত নয়, তবে তাদের হাতে থাকবে শুধু পারমাণবিক ছাই। ফিনল্যান্ড যদি মনে করে, তারা মার্কিনিদের সঙ্গে মিশে গেছে, তবে আমি বলব, লাইনে দাঁড়ান।’ রাশিয়া এখন ফিনল্যান্ডের সঙ্গে তার সীমান্তে পারমাণবিক অস্ত্র পুনঃস্থাপন করবে কি না–জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কেন? আমাদের দরকার নেই।’ শয়তান-২ প্রসঙ্গ এলে রুশ প্রতিনিধি বলেন, ‘এটা দিয়ে সাইবেরিয়া থেকে ব্রিটেনে আঘাত করতে পারব। যদি আমরা কালিনিন গ্রাদ থেকে আঘাত করি, তবে এটি ব্রিটেনে পৌঁছাতে লাগবে ২০০ সেকেন্ড। আর মাত্র ১০-২০ সেকেন্ডে এটি পৌঁছে যাবে ফিনল্যান্ড। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ইঙ্গিত করে জুরাভলিভ বলেন, ‘আমরা দীর্ঘসময় ধরে সহ্য করি, কিন্তু চিরকাল নয়। সারা বিশ্ব ইতোমধ্যে জেনে গেছে, যুক্তরাষ্ট্র তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ ঘটাতে সম্ভাব্য সবকিছু করবে। তারা পারমাণবিক হামলার দিকে না যাওয়ার চেষ্টা করবে। কিন্তু তারা পুরো ইউরোপকে রাশিয়ার সঙ্গে সংঘাতের দিকে টেনে আনার চেষ্টা করবে। এশিয়ার পরিস্থিতিকে উত্তেজিত করবে। তারা তাদের সব সমস্যার জন্য তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধকে দায়ী করতে পারবে, যেমনটি তারা আগে প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় করেছিল।’ তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে রাশিয়া কি প্রথমে পারমাণবিক অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে পারে? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই। রাশিয়ার অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়লে এটা করতে আমরা বাধ্য হব।’ আরও পড়ুন: ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্টকে সরাসরি হুমকি দিলেন পুতিন এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন এখন একটি জোটে যোগ দিতে যাচ্ছে, যারা রাশিয়াকে ধ্বংস করতে চায়। তারই জবাবে আমরা তাদের ধ্বংস করে দিতে চাই।’ বাল্টিক দেশ লিথুয়ানিয়া, লাটভিয়া ও এস্তোনিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রয়োজনে তাদের গুঁড়িয়ে দেব।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা অবশ্যই এসব চীনাবাদামকে (আঙুলে টিপে খোসা খুলতে হয়) ভয় পাই না। এরা দুর্গন্ধযুক্ত পোকার মতোই বাজে।’ এদিকে রোববার (১৫ মে) ন্যাটোয় যোগ দেওয়ার চূড়ান্ত ঘোষণা দিতে পারে ফিনল্যান্ড। গত বৃহস্পতিবার প্রাথমিক ঘোষণাটি আসার পরপরই দেশটিতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের হুমকি দিয়েছিল মস্কো। শনিবার অর্থ পরিশোধ না হওয়ার অজুহাতে ফিনল্যান্ডের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে ক্রেমলিন। রাশিয়ার এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ফিনিশ গ্রিড অপারেটর ফিনগ্রিড এ ঘাটতির জন্য বিকল্প উৎসের সন্ধান করবে তারা। নর্ডিক দেশটি নিজস্ব বিদ্যুৎ চাহিদার মাত্র ১০ শতাংশ আমদানি করে রাশিয়া থেকে। আরও পড়ুন: ফিনল্যান্ডে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করল রাশিয়া ফিনল্যান্ডের ফিনগ্রিডের পাওয়ার সিস্টেম অপারেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট রিমা পাইভিনেন বলেছেন, ‘রাশিয়া বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে তাতে কী! আমরা সুইডেন থেকে বিদ্যুৎ আমদানি বাড়িয়ে দেব। পাশাপাশি নিজস্ব বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়িয়ে সেই ঘাটতি পূরণ করা সম্ভব।’ রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সংস্থা নর্ডিক বলেছে, ‘এই পরিস্থিতিটি ব্যতিক্রমী এবং আমাদের বাণিজ্য ইতিহাসের ২০ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো এমন ঘটনা ঘটল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply