Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » জ্বালানির দাম বাড়ায় অভ্যাসে পরিবর্তন আনছে যুক্তরাষ্ট্র




বিশ্বজুড়ে জ্বালানির দাম বাড়ায় যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা তাদের গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে অভ্যাসের কিছু পরিবর্তন আনতে যাচ্ছেন। সম্প্রতি পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, দেশটির প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ গাড়ির মালিক বা পরিবার তাদের ড্রাইভিং প্যাটার্নে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনছে। রোববার (৮ মে) রাশিয়ার সংবাদমাধ্যম আরটির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। জ্বালানির দাম বাড়ায় অভ্যাসে পরিবর্তন আনছে যুক্তরাষ্ট্র জরিপ অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের ৬৬ শতাংশ গাড়ির ড্রাইভার গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে অভ্যাসে পরিবর্তন আনছেন বা আনবেন। যদি পেট্রলের দাম প্রতি গ্যালনে ৪ দশমিক ১২ ডলার ও ৪ দশমিক ৩৫ ডলারের মধ্যে থাকে, তাহলে এই ধারা অব্যাহত থাকবে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি গ্যালন গ্যাসের দাম ৪ দশমিক ৩ ডলারের কাছাকাছি। দেশটির ১ লাখ ৩০ হাজার স্টেশন থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই মূল্যের কথা জানা গেছে। জরিপে অংশ নেওয়া ১ হাজার ৩৯২ জনের মধ্যে ৩৪ শতাংশ জানিয়েছেন, পেট্রলের দাম প্রায় ৫ ডলার না হওয়া পর্যন্ত তারা গাড়ি চালানোর অভ্যাসে পরিবর্তন আনবেন না। যদিও ক্যালিফোর্নিয়া ও নেভাডাসহ যুক্তরাষ্ট্রের কিছু রাজ্যে এই মাত্রা অতিক্রম করেছে। আরও পড়ুন: ইউক্রেন সফরে মার্কিন ফার্স্টলেডি জ্বালানির দাম বাড়ায় যুক্তরাষ্ট্রে ভোক্তাদের ওপর কতটা প্রভাব পড়বে, সে বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে জরিপে। এতে দেখা গেছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে ও ডাক্তারের কাছে যাওয়ার ক্ষেত্রে ৬২ শতাংশ গাড়ির ব্যবহার কমাচ্ছেন। তা ছাড়া ৪১ শতাংশ তেল কেনার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকছেন অর্থাৎ নিজেদের সক্ষমতা অনুযায়ী গাড়িতে তেল নিচ্ছেন। এদিকে ৩৫ শতাংশ গাড়ি বাড়িতে রেখে গণপরিবহন ব্যবহারের কথা জানিয়েছেন। আবার ৩৪ শতাংশ জানিয়েছেন, কম দামে পাওয়া যায় এমন পেট্রল স্টেশন খোঁজ করবেন তারা। তা ছাড়া ২৯ শতাংশ ছুটি কাটানোর ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত গাড়িতে ভ্রমণ বাতিল করেছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply