Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » নারী টিভি উপস্থাপকদের মুখ ঢেকে রাখার নির্দেশ তালেবানের




আফগানিস্তানে নারী টেলিভিশন উপস্থাপক এবং পর্দার সামনে অন্যান্য নারীদের মুখ ঢেকে রাখার নির্দেশ দিয়েছে তালেবান। বুধবার (১৮ মে) গণমাধ্যমগুলোকে এই ডিক্রি সম্পর্কে অবগত করা হয়েছে বলে বিবিসি পশতুকে জানিয়েছেন ধর্মীয় পুলিশের একজন মুখপাত্র। দুই সপ্তাহ আগে সব নারীদের জনসমক্ষে মুখ ঢেকে বোরকা পরতে বা শাস্তির ঝুঁকি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল তালেবান। আফগানিস্তানে নারীদের ওপর ধারাবাহিকভাবে বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে- তাদের পুরুষ অভিভাবক ছাড়া ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং মেয়েদের জন্য মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধ রয়েছে৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কাবুলের একটি স্থানীয় টিভি স্টেশনে কর্মরত একজন নারী সাংবাদিক বলেন, সর্বশেষ নির্দেশটি শুনে তিনি হতবাক হয়েছেন। তিনি বলেন, তারা আমাদের টিভিতে উপস্থাপনা বন্ধ করতে পরোক্ষভাবে চাপ প্রয়োগ করছে। ওই নারী সাংবাদিক বলেন, মুখ ঢেকে খবর পড়ব কীভাবে? আমি এখন কী করব জানি না। আমাকে অবশ্যই কাজ করতে হবে। আমি আমার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী। তালেবানের প্রিভেনশন অব ভাইস অ্যান্ড প্রমোশন অব ভার্চ্যু মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, আগামীকাল ২১ মে থেকে নতুন ডিক্রি কার্যকর হবে। ওই মুখপাত্র নির্দেশটিকে 'পরামর্শ' হিসেবে উল্লেখ করেছেন। যদি কেউ মেনে চলতে ব্যর্থ হন, তাহলে তার কী হবে, সেটি স্পষ্ট নয়। টোলো নিউজ জানায়, আফগানিস্তানের সব গণমাধ্যমে আদেশটি জারি করা হয়েছে। টুইটারে এই সিদ্ধান্তের ব্যাপকভ সমালোচনা করা হচ্ছে। অনেকে এটিকে চরমপন্থা প্রচারের জন্য তালেবানের আরেকটি পদক্ষেপ বলে অভিহিত করেছেন। একজন অধিকার কর্মী টুইট করেন, কোভিড থেকে রক্ষা করতে বিশ্বে মানুষকে মাস্ক পরানো হচ্ছে। মানুষকে মুখ দেখানো থেকে বিরত রাখতে নারী সাংবাদিকদের মাস্ক পরাচ্ছে তালেবানরা। তালেবানদের কাছে নারীরা একটি রোগ। ১৯৯০-এর দশকে প্রথম ক্ষমতায় থাকার সময় তালেবান নারীদের সর্বজনীন বোরকা পরতে বাধ্য করেছিল। ২০০১ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সৈন্যরা কট্টরপন্থী ইসলামি আন্দোলনকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করেছিল। তারপরে অনেক বিধিনিষেধ শিথিল হয়েছিল। এরপর টেলিভিশনে নারীদের মুখ দেখানো একটি সাধারণ বিষয় হয়ে উঠে। গত বছরের আগস্টে বিদেশি বাহিনী প্রত্যাহারের পর ক্ষমতায় ফিরে আসে তালেবানরা। এবার তারা আরও নমনীয়ভাবে কট্টর রক্ষণশীল এবং পুরুষতান্ত্রিক দেশটি শাসন করবে বলে মনে করা হচ্ছিল। অনেক নারী বোরকা পরতেন, তবে বড় শহরগুলোতে নারীদের মাথায় স্কার্ফ পরতেও দেখা যেত। তবে মে মাসের শুরুর দিকে প্রিভেনশন অব ভাইস অ্যান্ড প্রমোশন অব ভার্চ্যু মন্ত্রণালয় জানায়, সব নারীকে জনসমক্ষে মুখ ঢেকে রাখতে হবে এবং এর জন্য বোরকা হলো আদর্শ পোশাক। সূত্র : বিবিসি






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply