Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » তাইজুল-সাকিবের আঘাতে লড়াইয়ে বাংলাদেশ




তাইজুল-সাকিবের আঘাতে লড়াইয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচ। প্রথম সেশনটা ভালো কাটলেও দ্বিতীয় সেশনে হতাশা দেখেছে বাংলাদেশ। দিনের দ্বিতীয় সেশনে শ্রীলঙ্কার একটি উইকেটও ফেলতে পারেনি মুমিনুল হকের দল। জুটি গড়ে উল্টো দাপট দেখিয়েছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ ও কুশল মেন্ডিস। অবশেষে এই শক্ত জুটি ভেঙে বাংলাদেশকে স্বস্তি এনে দিলেন তাইজুল ইসলাম। এরপর ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে আউট করে বাংলাদেশকে লড়াইয়ে ফিরিয়েছেন সাকিব আল হাসান। উইকেটে থিতু হয়ে যাওয়া মেন্ডিসকে ফিরিয়েছেন তাইজুল। ফেরার আগে ১৩১ বলে ৫৪ রানের ইনিংস খেলেছেন মেন্ডিস। ২৭ বলে ৬ রান করে বিদায় নিয়েছেন ধনঞ্জয়া। আজ রোববার প্রথম দিন ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরুর আভাস দেয় শ্রীলঙ্কা। শুরু থেকে কিছুটা হাত খুলে খেলেন দুই ওপেনার ওশাদা ফার্নান্দো ও দিমুথ করুণারত্নে। তবে, জুটি বড় করতে পারলেন না। লঙ্কান অধিনায়ক করুণারত্নেকে আউট করে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দিয়েছেন একাদশে ফেরা স্পিনার নাঈম হাসান। সাগরিকায় দিনের পঞ্চম ওভারেই হতাশা দেখে বাংলাদেশ। শরিফুলের ওই ওভারে রিভিউ নিয়ে ব্যর্থ হয় মুমিনুল হকের দল। বাঁহাতি পেসারের বল ব‍্যাটে খেলতে পারেননি ওশাদা ফার্নান্দো, বল লাগে প‍্যাডে। আম্পায়ার জোরাল আবেদনে সাড়া না দিলে রিভিউ নেন মুমিনুল হক। কিন্তু, রিভিউ নিয়েও কোনো লাভ হয়নি। তবে, কিছুক্ষণ পর অবশ্য সাফল্য এনে দিয়েছেন নাঈম। এলবি’র ফাঁদে ফেলেই লঙ্কান অধিনায়ককে আউট করেন তিনি। ১৭ বল খেলে ৯ রান করে আউট হন করুণারত্নে। এরপর আরেক ওপেনার ফার্নান্দোকেও ফিরিয়েছেন নাঈম। চট্টগ্রামে অনেকটা স্পিন-নির্ভর উইকেটের আশায় স্পিনেই বেশি জোর দিয়েছে বাংলাদেশ। একাদশে সাকিব আল হাসানসহ আছেন তিন স্পিনার। আর, পেস বিভাগে আছেন দুজন। করোনা থেকে সেরে উঠে একাদশে আছেন সাকিব আল হাসান। সিরিজের আগে চোটে ছিটকে যাওয়া মেহেদী হাসান মিরাজের বদলে দলে ঢুকেছিলেন নাঈম হাসান। তিনিও পেয়ে গেলেন সুযোগ। সাকিব-নাঈমের সঙ্গে তৃতীয় স্পিনার হিসেবে আছেন তাইজুল ইসলাম। পেস বিভাগে চোট সমস্যা কাটিয়ে একাদশে ফিরেছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম। এ বিভাগে তাঁর সঙ্গী আরেক পেসার খালেদ আহমেদ। সুযোগ পাননি ইবাদত হোসেন। অপর দিকে, দুই স্পিনার ও দুই পেসার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে শ্রীলঙ্কাও। তবে, সবশেষ সিরিজে দলে আট পরিবর্তন এনে মাঠে নেমেছে তারা। মোট সাত ব্যাটার ও দুজন করে বোলার নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছে দিমুথ করুণারত্নের দল






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply