Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » Thomas Cup Final: ব্যাডমিন্টনে বিশ্বসেরা ভারত! ইন্দোনেশিয়াকে উড়িয়ে সোনা টিম ইন্ডিয়ার




Thomas Cup Final: ব্যাডমিন্টনে বিশ্বসেরা ভারত! ইন্দোনেশিয়াকে উড়িয়ে সোনা টিম ইন্ডিয়ার ব্যাডমিন্টনের বিশ্বকাপ বলা হয় থমাস কাপকে। ইতিহাস বলছে ১৯৫২, ১৯৫৯, এবং ১৯৭৯ সালের সেমিফাইনালে ওঠাই ছিল ভারতের এর আগে সেরা সাফল্য। সেমিফাইনালে উঠলেও পদক জেতা হয়নি ভারত। পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে প্রথম তিনটি ম্যাচ জিতেই প্রথমবার থমাস কাপে সোনা পেল ইতিহাস লিখল কিদাম্বি শ্রীকান্ত ও লক্ষ্য সেনরা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ব্যাংককে বিশ্বজয়! ভারতীয় ব্যাডমিন্টনের ইতিহাসে আজ সোনালী দিন। রবিবাসরীয় থমাস কাপের (Thomas Cup) ফাইনাল উঠে আগেই ইতিহাস লিখেছিল ভারত, এবার টিম ইন্ডিয়া ১৪ বারের চ্যাম্পিয়ন ইন্দোনেশিয়াকে হারিয়ে সোনা জিতল ভারত। থমাস কাপের ৭৩ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম বার জয় এই বিরাট পেল ভারত। এক অবিস্মরণীয় অধ্যায়ের সূচনা হল। ব্যাডমিন্টনের বিশ্বকাপ বলা হয় থমাস কাপকে। টুর্নামেন্টের ইতিহাস বলছে ১৯৫২, ১৯৫৯, এবং ১৯৭৯ সালের সেমিফাইনালে ওঠাই ছিল ভারতের এর আগে সেরা সাফল্য। সেমিফাইনালে উঠলেও পদক জেতা হয়নি ভারত। পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে প্রথম তিনটি ম্যাচ জিতেই প্রথমবার থমাস কাপে সোনা পেল ইতিহাস লিখল কিদাম্বি শ্রীকান্ত ও লক্ষ্য সেনরা। এদিন প্রথম গেমে লক্ষ্য সেনকে হেলায় হারিয়ে দেন ইন্দোনেশিয়ার অ্যান্টনি। প্রথম গেমের ফলাফল ছিল ৮-২১। টানা ১২ পয়েন্ট জিতে গেম পয়েন্ট পৌঁছে যান অ্যান্টনি। দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন করেন লক্ষ্য। দ্বিতীয় গেম জিতলেন ২১-১৭ পয়েন্টে। ম্যাচের ফল ১-১। তৃতীয় গেমে ২১-১৬ ব্যবধানে অ্যান্টনিকে হারিয়ে প্রথম ম্যাচে ভারতকে এগিয়ে দিলেন লক্ষ্য সেন। প্রথম ম্যাচে খেলার ফলাফল ছিল ৮-২১, ২১-১৭, ২১-১৬। (২-১) দ্বিতীয় ম্যাচে চিরাগ শেট্টি এবং সাত্ত্বিকসাইরাজ রঙ্কিরেড্ডির জুটি মুখোমুখি হয় মহম্মদ এহসান এবং কেভিন সঞ্জয় সুকামুজোর। ডাবলসের প্রথম গেমে হেরে যান চিরাগ-সাত্ত্বিকসাইরাজরা। ১৮-২১ ব্যবধানে হেরে যান তাঁরা। ডাবলসের প্রথম গেমে হেরে গেলেও দ্বিতীয় গেমে ২৩-২১ পয়েন্টে জেতে ভারত। ২৭ মিনিটে আসে দুরন্ত জয়। সমতা ফেরান সাত্ত্বিকসাইরাজ-চিরাগ। অবিশ্বাস্য ঢঙে জিতে যায় ভারত। ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ভারত। ম্যাচের ফলাফল হয় ২১-১৮, ২৩-২১ এবং ২১-১৯। (২-১) লক্ষ্য সেনের পর ভারতকে এগিয়ে দিয়েছিলেন সাত্ত্বিকসাইরাজ-চিরাগ। তৃতীয় ম্যাচে প্রথম গেম কিদম্বি শ্রীকান্ত জেতেন ২১-১৫ ব্যবধানে। যদিও তৃতীয় ম্যাচের দ্বিতীয় গেমে হেরে যান শ্রীকান্ত। জনাথনের বিরুদ্ধে হেরেও ব্যাডমিন্টনে বিশ্বসেরা হয়ে যায় ভারত! প্রথম বার থমাস কাপ জিতে ইতিহাস গড়ল টিম ইন্ডিয়া।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply