Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » বার্সেলোনা ছাড়বেন না, সাফ জানিয়ে দিলেন ডি ইয়ং




বার্সেলোনার ডাচ মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ংকে নিয়ে দলবদলের গুঞ্জন নতুন কিছু নয়। বেশ কয়েকমাস ধরেই তিনি ক্লাব ছাড়বেন বলে সুর ভেসে বেড়াচ্ছে। গুঞ্জন আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে পুরনো কোচ এরিক টেন হ্যাগের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যেতে পারেন তিনি। কিন্তু ২৫ বছর বয়সি ফুটবলার সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি বার্সা ছাড়বেন না। সংবাদ মাধ্যমে ডি ইয়ং বলেছেন, যখনই কোনো দল কোনো নির্দিষ্ট খেলোয়াড়ের ওপর আগ্রহ দেখায় তখনই চাটুকারি সংবাদ বের হয়। এ মুহূর্তে আমি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্লাবে আছি। এখানে আমার ভালোই লাগছে। তাই এ সম্পর্কে (দলবদল) কোনো খবর শুনতে চাই না। ২০১৯ সালে আয়াক্স ছেড়ে বার্সেলোনায় যাওয়ার সময় ডি ইয়ং কেমন উচ্ছ্বসিত ছিলেন তা বার্সেলোনা ফ্যান মাত্রই জানার কথা। কাতালান ক্লাবটির সমর্থকরাও কম উচ্ছ্বসিত ছিলেন না তাকে নিয়ে। এখনও তো অনেকে ডি ইয়ংকে বার্সার প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের একজন মনে করেন। কেউ কেউ মনে করেন, ডি ইয়ং হতে পারেন তাদের লম্বা রেসের ঘোড়া! সপ্তাহখানেক আগেও একবার দলবদল নিয়ে মুখ খুলেছিলেন ডি ইয়ং। বার্সাকে অনেকটা শেষ ঠিকানা মেনে আয়াক্স ছাড়া ডি ইয়ং থাকতে চান কাতালান ক্লাবটিতেই। এ সম্পর্কে তার ভাষ্য ছিল, আমি বার্সায় থাকতে চাই। কারণ এটা আমার স্বপ্নের ক্লাব এবং তা অনেক আগে থেকে। এটা আমি আগেও বলেছি। এদিকে ডি ইয়ংকে পেতে বার্সেলোনাকে ৮০০ কোটি টাকার প্রস্তাব দিয়ে বসেছে ইউনাইটেড। ডাচ এ মিডফিল্ডার ইউরোপীয় জায়ান্টদের চোখে পড়েছিলেন ২০১৮-১৯ মৌসুমে। সে বছর আয়াক্স চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চলে গিয়েছিল সেমিফাইনাল পর্যন্ত। এর আগে নকআউটে বিদায় করেছিল রিয়াল মাদ্রিদ, রোনালদোর য়্যুভেন্তাসের মতো দলকে। আয়াক্সের হয়ে সেই মৌসুমটা দারুণ কাটিয়েছিলেন ডি ইয়ং। আর কোচ ছিলেন এরিক টেন হ্যাগ। পরের মৌসুমেই বার্সেলোনায় খেলার স্বপ্নপূরণ হয় তার। আর গুরু টেন হ্যাগের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে শিষ্য ডি ইয়ংয়ের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply