Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » হেমন্তের সঙ্গে উত্তমের বিবাদ ঘটেছিল; কেন দূরত্ব তৈরি হয়েছিল দু'জনের?




হেমন্তের সঙ্গে উত্তমের বিবাদ ঘটেছিল; কেন দূরত্ব তৈরি হয়েছিল দু'জনের? 'হারানো সুর' (১৯৫৭) ছবিতে হেমন্তের 'রমা' ডাকটা অবিকল যেন উত্তমেরই ডাক! সেই রোম্যান্স মাখানো মন্দ্র স্বর।

সৌমিত্র সেন: একটা যদি হয় শরীর, অন্যটা তবে আত্মা। অন্তত বাংলা ছবির দর্শকের একটা বড় অংশের তেমনই মত। উত্তম যদি শরীর হন, তবে হেমন্ত সেই শরীরের আত্মা। আসলে গানের দৃশ্যগুলিতে পর্দায় উত্তম আর পর্দার পিছনে (প্লেব্যাকে) হেমন্তের দ্বৈত উপস্থিতি দর্শক-শ্রোতার মনে এক অখণ্ড অদ্বৈত অনুভূতিতে ধরা দিত। তাঁরা মনে করতেন, বা বিশ্বাস করতে ভালোবাসতেন, উত্তম লোকটা যদি গান তবে তিনি হেমন্তের মতোই গাইবেন! আর হেমন্ত লোকটা যদি কথা বলেন তবে উত্তমের মতোই বলবেন। এ ভাবনাটা খুব মিথ্যেও তো নয়। 'হারানো সুর' (১৯৫৭) ছবিতে হেমন্তের 'রমা' ডাকটা অবিকল যেন উত্তমেরই ডাক! সেই রোম্যান্স মাখানো মন্দ্র স্বর। বাংলা ছবির ইতিহাস বলছে, উত্তমকুমার হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের প্রথম যৌথকাজ 'শাপমোচন' (১৯৫৫)। এর বেশ কয়েকবছর আগেই 'সহযাত্রী' ছবিতে দু'জনে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন বলে সিনেমা তথ্যবিদেরা বলে থাকেন। তবে সে ছবির কোনও প্রভাব গণমনে সেভাবে পড়েনি। 'শাপমোচন' ছবির উত্তম-অভিনয়ের সঙ্গে হেমন্ত-গানের আশ্চর্য সম্মিলনসুধাসাগরে নিজেদের সম্পূর্ণ আত্মবিসর্জন দিয়েছিলেন বাংলা ছবির দর্শক। 'সুরের আকাশে তুমি যে গো শুকতারা' বা 'ঝড় উঠেছে বাউল বাতাস'-এর মতো গানে হেমন্ত-উত্তমের দ্বৈতশিল্পে প্রায় চিরতরে মজে গেল বাঙালি। তারপর ছবির পর ছবিতে এই জুটির নানা সিদ্ধি, মন-মাতানো ম্যাজিকের মৌতাত। উত্তম-হেমন্ত জুটি ক্রমে বাংলাছবির পক্ষে একেবারে মণিকাঞ্চন যোগ হয়ে দাঁড়াল। যে কোনও ইন্ডাস্ট্রিতেই এমন যোগ খুব বেশি হয় না। ফলে এমন একটা অতুলনীয় জুটি নিয়ে বাংলা ছবির গৌরববোধও ছিল যথেষ্ট। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট দুই স্রষ্টার মনেও কি কোনও বিরল তৃপ্তিবোধ ছিল না? বা ছিল না কোনও সুদূরলালিত কমপ্লেক্স? না থাকাটাই অস্বাভাবিক। এবং কিছুটা যে ছিলই, তার প্রমাণ মেলে পরবর্তী কালে উত্তম-হেমন্ত জুটির মধ্যে পরতে পরতে মেঘ জমতে শুরু করায়। কেন মেঘ? নানা রকম মতই উঠে এসেছে। নানা ঘটনা শোনা গিয়েছে। কোনটা সত্য, কোনটা নিছক রটনা-- কেউ সেসব গবেষণা করে স্থির করে দেননি পরবর্তী কালে। ফলে বিষয়টি নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই গেছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply