Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » নূপুর শর্মা বিতর্ক! দফায় দফায় বিক্ষোভে রণক্ষেত্র পশ্চিমবাংলার উলুবেড়িয়া




নূপুর শর্মা বিতর্ক! দফায় দফায় বিক্ষোভে রণক্ষেত্র উলুবেড়িয়া অভিযোগ, উলুবেড়িয়া বানিতবলা চেকপোস্টে এলাকায় পুলিসের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধ বাঁধে। ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে পুলিসের গাড়ি এবং প্রাইভেট গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। ভাঙচুরও করা হয়। পুড়িয়ে দেওয়া হয় পুলিস কিয়স্ক। মহম্মদ পয়গম্বর নিয়ে বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্য। যার জেরে বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যের বহু এলাকায় প্রতিবাদ শুরু হয়েছে। পথ অবরোধ হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে রণক্ষেত্র উলুবেড়িয়া। অভিযোগ, উলুবেড়িয়া বানিতবলা চেকপোস্টে এলাকায় পুলিসের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধ বাঁধে। ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে পুলিসের গাড়ি এবং প্রাইভেট গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। ভাঙচুরও করা হয়। পুড়িয়ে দেওয়া হয় পুলিস কিয়স্ক। ভাঙা হয় মহকুমা শাসকের কার্যলয়। জানা গিয়েছে, উলুবেড়িয়ায় একটি বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। ওই মিছিল উলুবেড়িয়া শহর পরিক্রমা করে মহকুমা শাসকের কার্যালয়ের

সামনে যায়। বিক্ষোভ দেখানোর পর নূপুর শর্মার কুশপুত্তলিকা পোড়ানো হয়। একই সঙ্গে ভাঙচুর করা হয় মহকুমা শাসকের কার্যালয়। শুক্রবার সকালে থেকেই উত্তপ্ত পার্কসার্কাস, উলুবেড়িয়া, পোর্টের কাচ্চি সড়ক রোড। সেখানে অবরোধ করা হয়। সেভেন পয়েন্টে জমায়েতের জেরে সংলগ্ন রাস্তায় যানজটের সৃষ্টি হয়। এমনকী কাচ্চি সড়ক রোডে অবরোধের জন্য CGR রোডে যানজট তৈরি হয়। বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি তৈরি হয়। বোমাবাজির অভিযোগও ওঠে। বৃহস্পতিবার সকালে প্রথমে অঙ্কুরহাটিতে অবরোধ করা হয়। এরপর তা বাড়তে থাকে। সন্ধের মধ্যে ১০৬ নম্বর জাতীয় সড়ক এবং কোনা এক্সপ্রেসওয়ে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে যায়। নবান্ন সাংবাদিক সম্মেলন করে করজোড়ে অবরোধ তুলে নেওয়ার আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি। শেষে পুলিস প্রশাসনের তৎপরতায় ১১ ঘণ্টা পর ওঠে অবরোধ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply