Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সেই মডেল গ্রেফতার




সেই মডেল গ্রেফতার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী (সাবেক শিক্ষামন্ত্রী) ও তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি গ্রেফতার হওয়ার পর তার ঘনিষ্ঠ মডেল অর্পিতাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে অর্পিতাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট-এর (ইডি) একটি সূত্র। এর আগে, দক্ষিণ কলকাতার একটি অভিজাত আবাসনের একটি ফ্ল্যাট থেকে ২০ কোটি রুপিরও বেশি উদ্ধার করেছে ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। এই ফ্ল্যাটটি অর্পিতা মুখার্জির বলে দাবি তাদের। শুক্রবার (২২ জুলাই) ওই ফ্ল্যাটে অভিযান চালায় ইডি। ইডি জানায়, অর্পিতা রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জির ঘনিষ্ঠ সহযোগী। তদন্তকারীরা দাবি করেন, ‘পার্থ-ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতার বাড়ি থেকে ২০টি মোবাইল ফোনও উদ্ধার হয়েছে। পাওয়া গেছে স্বর্ণসহ বিদেশি মুদ্রা। আরও পড়ুন: মমতার ঘনিষ্ঠ মন্ত্রী গ্রেফতার

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে ঢালাও শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত করছিল ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই এবং তার সহযোগী ইডি। এই ঘটনায় শুক্রবার কলকাতা এবং রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় একযোগে তল্লাশি অভিযান শুরু করে কেন্দ্রীয় এই গোয়েন্দা সংস্থা। রাজ্যের রাজনৈতিক অঙ্গনে নিঃসন্দেহে এটি একটি বড় ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে।‌ আরও পড়ুন: মোদি বিরোধীদের লক্ষ্য ২০২৪, মহাজোটে নতুন মুখ কে? শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে মমতা প্রশাসনের বিরুদ্ধে ঢালাও দুর্নীতির অভিযোগে একাধিক মামলা হলে মামলার তদন্ত শুরু করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই। এর আগে বেশ কয়েক দফায় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও বর্তমান প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে দফতরে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদও করেন গোয়েন্দারা। এবার সরাসরি তাদের বাড়িতে হানা দিয়ে তল্লাশি অভিযানে নামল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। হাইকোর্টের নির্দেশে এর আগে শিক্ষা দফতরের বেশ কয়েকজন শীর্ষ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। এদিকে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের অভিযান বিজেপির বিরুদ্ধেই সুর চওড়া করেছে তৃণমূল। রাজ্যটির প্রভাবশালী মন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, ২১ জুলাই মঞ্চ থেকে ২০২৪ সালে লোকসভা ভোটের মধ্যদিয়ে দেশ থেকে বিজেপিকে বিতাড়নের ডাক দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ডাক শুনে মোদি ভয় পেয়ে গেছেন। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বলে কোনো অস্তিত্ব নেই। তাই তারা সিবিআই ও ইডির গোয়েন্দাদের রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করছেন। এদিকে রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতা দিলীপ ঘোষ বলেছেন, মমতার প্রশাসনের শতভাগ মন্ত্রী এবং আমলা দুর্নীতিগ্রস্ত। শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে হাজার হাজার কোটি টাকা তুলেছে তৃণমূল। তাই প্রয়োজনে মন্ত্রীদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply