Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » চার সিনিয়রের শেষ ২০২৩ বিশ্বকাপ দিয়ে, ইঙ্গিত তামিমের




পঞ্চ পাণ্ডব- বাংলাদেশ ক্রিকেটের বিজ্ঞাপন বলা যায় এই পাঁচ ক্রিকেটারকে। তাদের একজন মাশরাফি বিন মর্তুজা অবসরে গেছেন আগেই। বাকি চারজন- মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহও কি বিদায়ের দ্বারে? গায়ানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দাপুটে জয়ের পর যেন সেই ইঙ্গিতই এলো অধিনায়ক তামিমের কথায়। দলপতির ভাষ্য, ২০২৩ বিশ্বকাপই হতে পারে চার সিনিয়ের শেষ। ২০১৯ বিশ্বকাপে মাশরাফির নেতৃত্বে দল পারেনি প্রত্যাশা পূরণ করতে। ২০২০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে তিনি নেতৃত্বকে বিদায় জানান। এরপর দলে থেকেও বাদ পড়েন। আর কখনও জায়গা ফিরে পাননি, তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ ধরে নেওয়া যায় নিশ্চিতভাবেই। বাকি চারজনের ক্যারিয়ারের সম্ভাব্য সমাপ্তি নিয়েও আলোচনা হয় প্রায়ই। ১৭ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পদচারণা মুশফিকের, সাকিবের ১৬ বছর। তামিম খেলছেন ১৫ বছর ধরে, মাহমুদউল্লাহর ১৫ বছর পূর্ণ হবে ১০ দিন পরই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে এবার মুশফিক ও সাকিব ছিলেন না ছুটিতে থাকায়। তবে দুজনই দলের অবিচ্ছেদ্দ অংশ। তামিম তো অধিনায়কই। মাহমুদউল্লাহর ফর্ম, ফিটনেস ও দলে জায়গা নিয়ে প্রশ্ন আছে। তবে গায়নায় বুধবার ম্যাচ শেষে তামিম যা বললেন, তাতে প্রায় দেড় বছর পরের বিশ্বকাপ ভাবনায় মাহমুদউল্লাহও আছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২-০ তে সিরিজে এগিয়ে থাকার পরও উন্নতির তাড়না জানাতে গিয়ে চার সিনিয়রের ভবিষ্যৎ নিয়ে ইঙ্গিত দিলেন তামিম। “এখনও অনেক জায়গা আছে, যেগুলো আমাদের ঠিকঠাক করতে হবে। ২০২৩ বিশ্বকাপ সম্ভবত হবে আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় আসরগুলোর একটি, বিশেষ করে আমাদের চার জনের জন্য, আমরা খুব সম্ভবত সেখানেই শেষ করব। আমাদের স্রেফ সম্ভাব্য সেরা দল সমন্বয় ও সেরা দল গড়তে হবে।” এখানে নাম সুনির্দিষ্ট করে না বললেও কারও বুঝতে সমস্যা হওয়ার কথা নয়, কোন চার জনের কথা বলেছেন তামিম। পরে একই কথা নিজের অফিসিয়াল ফেইসবুক পাতায় লিখে সেখানে সবার নামও উল্লেখ করেছেন তিনি। এখানে সংস্করণ নিয়ে খোলাসা না করলেও তামিম নানা সময়ে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে নিজের অবসর পরিকল্পনার কথা জানাতে গিয়ে বলেছেন, টেস্ট ক্রিকেট ছাড়তে চান তিনি সবার পরে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply