Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে গরু ব্যবসায়ী অর্ধলক্ষ টাকা হারিয়েছে




যাত্রীবাহি বাসের মধ্যে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে অর্ধলক্ষ টাকা হারিয়ে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার বহলবাড়িয়া ছত্রগাছা গ্রামের গরু ব্যবসায়ী মতিয়ার রহমান (৫৭)। সোমবার দুপুরে মেহেরপুর কুষ্টিয়া সড়কের মিরপুর কাতলামারি বাজারে আসার পথে যাত্রীবাহি একটি বাসের মধ্যে এঘটনা ঘটে। মতিয়ার রহমান বহলবাড়িয়া গ্রামের মুত মুলহাক মন্ডলের ছেলে।

মতিয়াররের বড় ছেলে সোহাগ জানান, সোমবার দুপুরে কাতলামারি পশু হাটে গরু ক্রয় করার জন্য আমার মায়ের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে রাস্তায় বের হন আমার বাবা। তার কাছেও টাকা ছিল যার পরিমান আমরা বলতে পারবোনা। একটি মোবাইল ফোন ছিল। বিকেল গড়িয়ে সন্ধা হলেও বাবা বাড়ি না ফিরে এলে তার মোবাইলে কল করা হয়। কলটি গাংনী হাসাপালের একজন ব্যাক্তি রিসিভ করে আমার বাবার বিষয়টি জানতে পেরে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছুটে আসি। আমার বাবা এখনও অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছেন। তার কাছে টাকা পায়সা যা ছিল সব নিয়ে গেছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। বাস চালক তাকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে নামিয়ে দিয়ে যায়। আমার বাবাকে বাজারের লোকজন হাসপাতালে ভর্তি করেন। গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে চিকিৎসক খোকন রেজা জানান, অজ্ঞাত ব্যাক্তি হিসেবে অজ্ঞান অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছিল ওই ব্যাক্তিকে। পরে পারিবারের লোকজন এসে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে তার জ্ঞান ফিরে পেতে অনেক সময় লাগবে। গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, বিষয়টি শূনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ পাঠিয়েছিলাম। মতিয়ারের জ্ঞান ফিরে না আসা পর্যন্ত কিছ’ বলা যাচ্ছেনা তার সাথে কি হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply