Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ৭ মাসে ৭ অধিনায়ক, সৌরভ বললেন পরিস্থিতির শিকার




গত এক বছরে ভারতের রঙিন ও সাদা পোশাকের ক্রিকেট মিলিয়ে মোট আটজন অধিনায়ক নেতৃত্ব দিয়েছেন। যেখানে হার্দিক পান্ডিয়া থেকে শুরু করে ঋষভ পান্ত কিংবা জাসপ্রিত বুমরাহরা প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে নেতৃত্ব দেওয়ার স্বাদ পেলেন। এর মধ্যে গত সাত মাসেই অধিনায়ক পরিবর্তন হয়েছে সাতবার। বিশেষ করে গত দুই তিন সিরিজে তো প্রতিনিয়ত অধিনায়ক পরিবর্তন হয়েই যাচ্ছে। ঘন ঘন নেতৃত্বে এত পরিবর্তন নিঃসন্দেহে কোনো দলের জন্য শুভকর নয়। বিষয়টি মানছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলিও। তবে ভারতের সাবেক এই অধিনায়কের মতে, পরিস্থিতির শিকার তারা। বিশেষ করে অধিনায়ক হিসেবে বিরাট কোহলির সরে যাওয়ার পর থেকে বিভিন্ন কারণে নেতৃত্বে পরিবর্তন করতে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট টিমকে। কোহলির সরে যাওয়ার পর তিন ফরম্যাটেই রোহিত শর্মাকেই নেতৃত্ব দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তবে রোহিতের অনুপস্থিতিতে নেতৃত্বের দায়িত্ব আসে লোকেশ রাহুলের কাঁধেও। এদিকে নতুন অধিনায়কদের প্রস্তুত করার লক্ষ্যে নেতৃত্বের পরীক্ষা দেওয়া হয় পান্ত এবং পান্ডিয়াকে। এ ছাড়াও টেস্টে আজিঙ্কা রাহানে কিংবা ওয়ানডেতে শিখর ধাওয়ানকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায়। এদিকে এজবাস্টন টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নেতৃত্বের দায়িত্ব পান বুমরাহও। নিজের ফিফটি ছোঁয়ার দিনে দলের অধিনায়কত্ব নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সৌরভ গাঙ্গুলি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, ‘আমি পুরোপুরি একমত, এত অল্প সময়ের মধ্যে ৭ জন আলাদা অধিনায়ক থাকা আদর্শ ব্যাপার নয়। কিন্তু এটি অনিবার্য পরিস্থিতির কারণে ঘটেছে। যেমন, রোহিত দক্ষিণ আফ্রিকায় সাদা বলের সিরিজে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল, কিন্তু এই সফরের আগে সে চোটে পড়ল। তাই আমরা কেএলকে (লোকেশ রাহুল) ওয়ানডের নেতৃত্ব দিয়েছিলাম এবং এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজের জন্যও, সিরিজটি শুরু হওয়ার একদিন আগে সেও চোটে পড়ল। ইংল্যান্ডে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় রোহিত কোভিড আক্রান্ত হলো। এই পরিস্থিতিতে কারও দোষ নেই। সূচিই এমন যে আমাদের খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিতে হচ্ছে এবং এরপর চোটাঘাত তো আছেই। ‘ওয়ার্কলোড’ ম্যানেজমেন্টের ব্যাপারটিও মাথায় রাখতে হয়। প্রতিটি সিরিজে প্রধান কোচ রাহুলের (দ্রাবিড়) অবস্থাটা আমরা বুঝতে পারি। অনিবার্য পরিস্থিতির কারণে আমাদের নতুন অধিনায়ক বেছে নিতে হয়েছে।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply