Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » নতুন এফটিপিতে যাদের সঙ্গে টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ




আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আগামী চার বছরের ভবিষ্যৎ সফরসূচী (ফিউচার ট্যুর প্ল্যান-এফটিপি) প্রায় চূড়ান্ত করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। যেখানে আগামী দুই চক্রে ২০২৩-২৫ এবং ২০২৫-২৭ এর মধ্যে কোন দল কোন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে কোথায় কয়টি করে টেস্ট ম্যাচ খেলবে সেটি প্রকাশ করেছে আইসিসি। ক্রীড়াভিত্তিক ওয়েবসাইট নিজেদের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি সামনে এনেছে। যদিও পুরোপুরি চূড়ান্ত করা হয়নি প্রকাশিত এফটিপি। তবে প্রায় নিশ্চিত হয়ে যাওয়া সেই এফটিপিতে আগামী চার বছরের শীর্ষ নয় দলের টেস্টের সফরসূচি দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে চাইলে যেকোন বোর্ড দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে একে অপরের সঙ্গে খেলতে পারবে। আগামী চার বছরে মোট পাঁচটি দল ৩০টির বেশি টেস্ট খেলার সুযোগ পাবে। যার মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে। এছাড়া অন্য দলগুলো হলো ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড এবং ভারত। এরমধ্যে ইংল্যান্ড সর্বোচ্চ ৪২টি টেস্ট খেলার সুযোগ পাবে। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়া ৪১ এবং ভারত পাবে ৩৮ টেস্ট খেলার সুযোগ। এরপরেই আছে বাংলাদেশের নাম। আগামী চার বছরের দুই চক্রে টাইগাররা মোট ৩৪টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। এছাড়াও কিউইরা খেলবে ৩২ টেস্ট। বাংলাদেশ দুই চক্রের মধ্যে ২০২৩-২৫ সালের মধ্যে মোট ছয়টি সিরিজ খেলার সুযোগ পাবে। নিয়মানুযায়ী যার তিনটি হবে হোম সিরিজ এবং বাকি তিনটি অ্যাওয়ে সিরিজ। অ্যাওয়ে সিরিজের মধ্যে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের নাম। ফলে ২০১৯ সালের পর আবার ভারত সফর করবে টাইগাররা। এদিকে হোম সিরিজে ২০২৩-২৫ চক্রে বাংলাদেশে আসবে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কার মতো দল। তবে বাংলাদেশের চোখ থাকবে নিশ্চিতভাবে পরের চক্রে। ২০২৫-২৭ চক্রের মধ্যে বাংলাদেশ অ্যাওয়ে সিরিজ খেলতে যাবে অস্ট্রেলিয়ায়। সর্বশেষ ২০০৩ সালে অজিদের মাটিতে কোনো টেস্ট সফর করেছিল টিম টাইগার। ফলে প্রায় দুই যুগ পর আবার অস্ট্রেলিয়ায় সাদা পোশাকের কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ থাকছে বাংলাদেশের সামনে। এছাড়া পরের চক্রে বাংলাদেশের অন্য দুই অ্যাওয়ে সিরিজ হবে যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। এই চক্রে বাংলাদেশের হোম সিরিজে প্রতিপক্ষ হিসেবে আসবে পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ইংল্যান্ড। ২০১৬ সালের পর আবার ইংলিশদের ঘরের মাঠে টেস্টে হারানোর সুযোগ থাকবে টাইগারদের সামনে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply