Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মিরাজ-মুশফিক নাকি সাকিব, ও পেনিংয়ে কে!




মিরাজ, মুশফিক নাকি সাকিব; ওপেনিংয়ে কে! ছবি- সংগৃহীত টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ছয় ওভারের পাওয়ার প্লে কাজে লাগানোর দায়িত্ব থাকে ওপেনারদের ওপর। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের ওপেনাররা সেই দায়িত্ব পালনে খুব একটা সফল নন। নতুন ব্র্যান্ডের ক্রিকেট উপহার দেওয়ার লক্ষ্যে আগ্রাসী ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার কিংবা পারভেজ হোসেন ইমনকে দিয়ে চেষ্টা চালিয়েছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। এরমধ্যে মুনিম ৫ ম্যাচে মোটে ৩৪ রান করে ব্যর্থ হয়েছেন বলা চলে। আরেক ওপেনার ইমন খেলেছেন মাত্র ১ ম্যাচ। দলের অন্যতম সেরা ওপেনার লিটন দাস চোটে পড়ে ছিটকে গেছেন। তামিম ইকবাল তো টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরই নিয়ে ফেলেছেন। নাঈম শেখ দলের বাইরে আছেন লম্বা সময় ধরে। এমন অবস্থায় এশিয়া কাপে দুই ওপেনার নিয়ে রওনা দেবে বাংলাদেশ। এরমধ্যে এক ওপেনার আনামুল হক বিজয় ওয়ানডেতে ভালো করে টি-টোয়েন্টি ওপেনিংয়ের জায়গা দখল করেছেন। আরেক ওপেনার ইমনের অভিজ্ঞতা মোটে ১ ম্যাচ। যার ফলে এশিয়া কাপের মতো আসরে ওপেনিংয়ের দায়িত্ব সামলানোর চাপ এই ক্রিকেটারের ওপর দেওয়াটা বেমানান। এমন অবস্থায় অন্য ওপেনার হিসেবে উঠছে শেখ মাহেদী, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুশফিকুর রহিম কিংবা টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের নাম। এরমধ্যে শেখ মাহেদী এবং মেহেদী মিরাজকে ঘরোয়া বিপিএলে এর আগেও ওপেন করতে দেখা গেছে। মুশফিক কিংবা সাকিব মূলত মিডল অর্ডারেই খেলে গেছেন। যদিও মুশফিক ক্যারিয়ারের শুরুতে ওপেনিং করেছে বিকেএসপি, সদ্যই এমন তথ্য জানিয়েছেন নাজমুল আবেদীন ফাহিম। এদিকে ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্সের নজরে আছেন মিরাজ। আজ (১৮ আগস্ট) গণমাধ্যমে সিডন্স বলেন, ‘আপনাকে সেই পজিশনে এমন কাউকে নামাতে হবে, যে কাজটা ঠিকভাবে সম্পন্ন করতে পারবে। মিরাজ সে কিন্তু একটা অপশন হতে পারে। তার হাতে অনেক শট আছে।’ এদিকে বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান গণমাধ্যমে ওপেনিং পজিশন নিয়ে আজ বলেন, ‘ওপেনিংয়ে তামিম নাই, লিটন নাই। সো একটা গ্যাপ হয়েছে। আমাদের কপাল ভালো যে, বিজয়কে কয়েক মাস আগে থেকে দলে যুক্ত করায় আমাদের এখন বিজয় আছে। আমরা আরও কয়েকজনকে চেষ্টা করেছি। আমরা মুনিম শাহরিয়ারকে কিছু ম্যাচ এবং একটা ম্যাচে ট্রাই করেছি ইমনকে। কিন্তু এক-দুই ম্যাচ যথেষ্ট নয়। ওদেরকে আরও সময় দিতে হবে। তবে ইমন সেখানে যাচ্ছে। ইমন আসতে পারে ওপেনিংয়ে। ইমন যদি না আসে তাহলে কে আসতে পারে? শেখ মাহেদীও ওপেন করেছে। আমাদের ঘরোয়া লিগে করে। মেহেদী হাসান মিরাজও নাকি ওপেন করে। মুশফিকও আছে। তবে পুরো সিদ্ধান্তটা নির্ভর করবে কয়েকটা জিনিসের ওপর। প্রথম হচ্ছে, কোথায় খেলা হচ্ছে এবং প্রতিপক্ষ কে? প্রতিপক্ষ কী ধরনের আক্রমণ শুরু করতে পারে, কারা বোলিং করতে পারে। সেটা মাথায় রেখে ওই ধরনের কন্ডিশনে বোলারকে কে ভালো ফেস করতে পারবে। কে প্রথম ছয় ওভারের অ্যাডভান্টেজ নিতে পারবে। এসব এখনও আলাপ-আলোচনা করছে। কিন্তু সিদ্ধান্তটা নেবে অধিনায়ক। এখন সাকিব যদি মনে করে, কিংবা আত্মবিশ্বাসী থাকে সে ওপেন করবে। তাহলে সাকিব ওপেনিংয়ে নামতে পারে।’ এখন দেখার বিষয়, ওপেনিংয়ের মিউজিক্যাল চেয়ারে শেষ পর্যন্ত কে বসেন; মিরাজ, মুশফিক, মাহেদী নাকি অধিনায়ক সাকিব স্বয়ং!






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply