Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে প্রাণ গেল ফিলিস্তিনি যুবকের




ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে অধিকৃত পশ্চিম তীরে এক ফিলিস্তিনি যুবক নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় আহত হয়েছে আরও অন্তত ২০ জন। ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি, তাদের দিকে লক্ষ্য করে প্রথমে গুলি চালায় ওই যুবক, পরে পাল্টা গুলিতে সে নিহত হয়। যদিও তেল আবিবের এমন বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন প্রশাসন। খবর রয়টার্সের। এদিকে একই দিনে পশ্চিম তীরের সাতটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়েছে ইসরাইলি সেনারা। তাদের অভিযোগ, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল প্রতিষ্ঠানগুলো। নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলি বাহিনীর আগ্রাসন যেন এখন প্রতিদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। পশ্চিম তীর, পূর্ব জেরুজালেম কিংবা গাজায় প্রতিনিয়ত ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় প্রাণ হারাচ্ছেন নিরীহ ফিলিস্তিনিরা। এর ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরের নাবলুস শহরে ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, স্থানীয় সময় ভোরে কয়েকজন ইহুদি উপাসক শহরটির একটি সমাধিস্থলে আসেন। এ সময় তাদের নিরাপত্তা দিতে সঙ্গে ছিল ইসরাইলি সেনা সদস্যরা। স্থানটি নিয়ে বহুদিন ধরেই ফিলিস্তিন-ইসরাইলের দ্বন্দ্ব চলছে। একপর্যায়ে উপাসক দলটিকে সমাধিস্থল ত্যাগ করতে বললে স্থানীয়দের সঙ্গে তাদের বাগ্‌বিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ফিলিস্তিনিদের ওপর সরাসরি গুলি চালায় বলে অভিযোগ করেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ সময় গুলিতে বেশ কয়েকজন হতাহত হন। আরও পড়ুন: যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন হলে কড়া প্রতিক্রিয়া দেখাবে ইসরাইল যদিও ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি, প্রথমে তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় কয়েকজন ফিলিস্তিনের একটি দল। এর পাল্টা জবাবে তারা গুলি ছুড়লে হতাহতের ঘটনা ঘটে। এদিকে একইদিন পশ্চিম তীরের অন্তত ৭টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়েছে ইসরাইলি সেনারা। অভিযানের ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে ইসরাইলি প্রতিরক্ষা বিভাগ। পরে এক বিবৃতিতে জানানো হয় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল প্রতিষ্ঠানগুলো। তাদের অফিসের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে কাগজপত্র আর কম্পিউটার তুলে নিয়ে যায় ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনীরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply