Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » খেরসনকে বিচ্ছিন্ন করল ইউক্রেন




রাশিয়ার সঙ্গে খেরসনের মূল যোগাযোগের একটি রাস্তা সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। খবর এএফপি। খেরসনকে বিচ্ছিন্ন করল ইউক্রেন রাশিয়া ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করার প্রথম দিকেই দখলে নেয় পূর্ব ইউক্রেনের খেরসন অঞ্চল। এ অঞ্চলে অন্তত ৩০ লাখ মানুষ বসবাস করেন। ইউক্রেন এই অঞ্চলটিকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয় এবং নিজেদের অঞ্চল বলে দাবি করে। দীর্ঘ যুদ্ধের পর সেই খেরসনে কৌশলগত সুবিধা পাওয়ার রাস্তা তৈরি করল ইউক্রেন। ইউক্রেন জানিয়েছে, রাশিয়ার মূল ভূখণ্ড থেকে খেরসন প্রবেশের অন্যতম প্রধান রাস্তা নিপ্রো নদী। ওই নদীর উপর একটি গুরুত্বপূর্ণ সেতু ছিল। এতদিন সেই সেতু ব্যবহার করেই খেরসনে সেনা এবং রসদ পাঠিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। ইউক্রেন কিছুদিন আগে দাবি করেছিল, সেতুর সেই রাস্তা তারা বন্ধ করে দিতে পেরেছে। সেতুটি নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। সোমবার (০৮ আগস্ট) তারা জানিয়েছে, রাতভর ওই সেতুতে শেলিং করে সেটি সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে ওই সেতু ব্যবহার করে রাশিয়া খেরসনে নতুন করে সেনা বা রসদ পাঠাতে পারবে না। খেরসনে অবস্থিত রাশিয়ার সেনাও বাইরে যেতে পারবে না। তারা কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। রাশিয়ার মদতপুষ্ট বিচ্ছিন্নতাবাদী যোদ্ধারাও একথা স্বীকার করেছে। তবে তারা জানিয়েছে, ইউক্রেনের আক্রমণে সেতুটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে সম্পূর্ণ ভেঙে গেছে, একথা তারা স্বীকার করেনি। বরং তাদের বক্তব্য, রাশিয়া ইতোমধ্যেই সেতুটি সংস্কারের কাজ শুরু করেছে। নৌকার মাধ্যমেও তারা জিনিসপত্র আদানপ্রদান করতে পারবে বলে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারা জানিয়েছেন। যদিও ইউক্রেন সেই কথায় আমল দেয়নি। তাদের বক্তব্য, এবার খেরসনে পুনর্দখলের কাজ শুরু হবে। আরও পড়ুন: পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রকে সামরিক ঘাঁটি বানিয়েছে রাশিয়া এদিকে ইউক্রেনের পারমাণবিক বিদ্যুৎ কোম্পানি ‘এনারোঅ্যাটম’-এর প্রধান পেত্রো কোটিন বলেছেন, জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র দখলকারী রুশ বাহিনী স্থাপনাটিকে একটি সামরিক ঘাঁটিতে পরিণত করেছে। যদিও স্থাপনাটির সুরক্ষায় এর চারপাশে একটি ‘অসামরিক এলাকা’ প্রতিষ্ঠার আরজি জানিয়েছে কিয়েভ। এরই মধ্যে সম্ভাব্য পারমাণবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা প্রকাশ করে সতর্ক করা হয়েছে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, পারমাণবিক প্লান্টে কোনোরকম হামলা হলে তা ‘আত্মঘাতী ব্যাপার’ হবে। তিনি জাপোরিঝিয়ায় জাতিসংঘ পরিদর্শকদের ঢুকতে দেয়ার আহবান জানিয়েছেন। আরও পড়ুন: রাশিয়ায় যোগ দিতে ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়ায় গণভোটের ঘোষণা এর আগে এক বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) প্রধান রাফায়েল গ্রোসি বলেছিলেন, ইউক্রেনের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আশপাশে সামরিক হামলার ঘটনায় তিনি ভীষণ উদ্বিগ্ন। এ হামলা ইউক্রেনকে পারমাণবিক বিপর্যয়ের চরম ঝুঁকিতে ফেলেছে। যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় দুর্ঘটনা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply